বিমানের পুরো ফ্লাইটে মাত্র একজন যাত্রী!

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:২৪, অক্টোবর ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:২৬, অক্টোবর ২১, ২০২০

পুরো বিমানে একজন যাত্রীবিশ্বের কয়েকটি দেশের এয়ারলাইনস ঘটনাক্রমে পুরো উড়োজাহাজে মাত্র একজন যাত্রী নিয়েই কয়েকটি ফ্লাইট চালিয়েছে। সেগুলো ভ্রমণ বিষয়ক গণমাধ্যমের খবরে উঠেও এসেছে। কিন্তু বাংলাদেশে এই ঘটনা দেখা গেলো প্রথমবার।
ঢাকা থেকে মাত্র একজন যাত্রী নিয়েই মালয়েশিয়ায় গেলো বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটের দিকে বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যায়। এতে রয়েছে ১৬২টি আসন। এর মধ্যে ১২টি বিজনেস ক্লাস ও ১৫০টি ইকোনমিক ক্লাস। তবে ফিরতি ফ্লাইটে ১১২ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকায় ফিরেছে উড়োজাহাজটি।

জানা গেছে, ঢাকা থেকে মালয়েশিয়ায় যাওয়া বিজি ০৮৬ ফ্লাইটে একমাত্র যাত্রী ছিলেন সোনা মিয়া। তার বাড়ি টাঙ্গাইলে। মালয়েশিয়ায় ট্রানজিট নিয়ে ব্রুনাই যাচ্ছেন তিনি। দেশটির দারুস সালাম এলাকায় কাজ করতেন সোনা মিয়া। ব্রুনাইয়ে থাকাকালীন দুর্ঘটনায় পড়ার ক্ষতিপূরণ গ্রহণ করাই তার উদ্দেশ্য।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে বেবিচকের বিধিনিষেধ ওঠার পর গত ১৮ আগস্ট ঢাকা-কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে আবারও বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস।
রাষ্ট্রায়ত্ত এই সংস্থার উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার জানান, ঢাকা থেকে কুয়ালালামপুরে সপ্তাহে দুই দিন অর্থাৎ মঙ্গল ও শুক্রবার এবং কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকায় বুধ ও শনিবার তাদের যাত্রীসেবা প্রদানের কার্যক্রম চলছে।

ঢাকা থেকে বিভিন্ন এয়ারলাইনসে চড়ে প্রবাসী কর্মী ও পর্যটকরাই মূলত মালয়েশিয়ায় বেশি যেতেন। তবে দেশটি পর্যটক ও বাংলাদেশি কর্মীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা রাখায় ঢাকা থেকে যাত্রী সংখ্যা বলা যায় শুন্যের কোটায়। শুধু ট্রানজিট যাত্রী ও মালায়েশিয়ার রেসিডেন্স পারমিটধারীরা এখন যেতে পারছেন। ফলে ঢাকা-কুয়ালালামপুর রুটে যাত্রী সংকটে রয়েছে এয়ারলাইনসগুলো।

/সিএ/জেএইচ/
টপ