দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসহুরিয়াত নেতাদের আমন্ত্রণ, পাকিস্তানের জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানে যাচ্ছে না ভারত

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:১০, মার্চ ২২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:১৫, মার্চ ২২, ২০১৯

দিল্লিস্থ পাকিস্তানি হাই কমিশনে এ বছর পাকিস্তানের জাতীয় দিবসের অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে প্রতিনিধি পাঠাচ্ছে না ভারত। ওই একই অনুষ্ঠানে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে হুরিয়ত (কাশ্মিরে স্বাধীনতার দাবিতে আন্দোলনরত সংগঠনগুলোর জোট) প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানানোর প্রতিক্রিয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়াদিল্লি। শুক্রবার (২২ মার্চ) এ খবরটিকে প্রধান শিরোনাম করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রথম পাতা
১৯৪০ সালের ২৩ মার্চ লাহোরে স্বাধীন পাকিস্তান তৈরির প্রস্তাব পাস করে মুসলিম লিগ। ১৯৫৬ সালের ২৩ মার্চ নতুন সংবিধান অনুযায়ী কাজ শুরু হয় সেদেশে। প্রতি বছর তাই ২৩ মার্চকে  ‘জাতীয় দিবস’ হিসেবে পালন করে আসছে পাকিস্তান। দিল্লিস্থ পাকিস্তান হাই কমিশন দিবসটি পালন করছে একদিন আগে (২২ মার্চ)। কূটনৈতিক নিয়ম অনুযায়ী যে দেশে হাই কমিশন রয়েছে, সেই দেশের প্রতিনিধিকে গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় দিবসে আমন্ত্রণ জানানো হয়। সে অনুযায়ী ভারতীয় প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তবে ওই অনুষ্ঠানে হুরিয়াতের নেতাদের আমন্ত্রণ জানানোর কারণে এ বছর তা বর্জন করেছে ভারত সরকার।

পাকিস্তানের তরফে ভারতকে আমন্ত্রণ পাঠানো হয়েছিল শুক্রবার পাকিস্তান হাই কমিশনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্যে। কিন্তু সেই নিমন্ত্রণ গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানায় ভারত।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানে হুরিয়ত নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো নিয়ে আগেও বহুবার আপত্তি জানিয়েছে ভারত। কিন্তু আপত্তি সত্ত্বেও পাকিস্তানের জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানে প্রতিনিধি পাঠিয়েছিল নয়াদিল্লি। এনডিএ আমলেও এ নিয়ে ভারতের আপত্তির কথা পাকিস্তানকে জানানো হয়েছিল। কিন্তু এ অনুষ্ঠান কখনও বয়কট করেনি ভারত। ২০১৫ সালে এই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন তৎকালীন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ভি কে সিং। ২০১৬ সালের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন প্রকাশ জাভেদকর। ২০১৭ সালে পাকিস্তানের জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন তৎকালীন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর। ২০১৮ সালের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন কৃষি প্রতিমন্ত্রী গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত।

/এফইউ/

লাইভ

টপ