নিয়মিত শরীরচর্চা করছেন তো?

Send
লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:৩৯, নভেম্বর ১৫, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪৫, নভেম্বর ১৫, ২০১৭

ছবি-সংগৃহিতনিয়মিত শরীরচর্চা করলে অনেক ধরনের সুফল পাওয়া যায়। এতে অনাকাঙ্খিত অনেক রোগ থেকে যেমন বাঁচা যায় তেমনি শরীর মন থাকে চাঙ্গা। আর নিয়মিত শরীরচর্চা করলে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে এবং স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়। পাঠক জেনে নিন তাহলে নিয়মিত শরীরচর্চা করার কিছু উপকারিতা সম্পর্কে…

মন চাঙ্গা রাখে

নিয়মিত শরীর চর্চা করলে মন চাঙ্গা থাকে। কারণ নিয়মিত শরীরচর্চায় শরীরের সেরাটোনিন এবং নোরেপিনেফ্রিন নামে এক ধরণের হরমোনের ক্ষরণ বাড়তে শুরু করে। এই দুটি হরমোনের মাত্রা দেহে যত বাড়তে শুরু করে, স্ট্রেস লেভেল তত কমতে থাকে। সেই সঙ্গে অ্যাংজাইটি এবং দুশ্চিন্তাও দূর হয়। এতে মন চাঙ্গা হয়ে উঠে। 

ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে

নিয়মিত শরীরচর্চা করলে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে। কারণ শরীরচর্চার সময় শরীর থেকে অনেক ঘাম ঝরে। আর ঘাম ঝড়লে স্বাভাবিকভাবেই ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে।

পেশি এবং হাড়ের শক্তি বাড়ে

আমাদের বয়স যত বাড়তে থাকে তত পেশি এবং হাড়ের ক্ষমতা কমতে শুরু করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই অস্টিওপোরোসিস বা জয়েন্ট পেনের মতো রোগ এসে বাসা বাঁধে শরীরে। গবেষণায় দেখা গেছে, শরীরচর্চার সঙ্গে সঙ্গে যদি নিয়মিত প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া যায়, তাহলে অল্প সময়ের মধ্যেই পেশি এবং হাড়ের কর্মক্ষমতা বাড়তে শুরু করে। ফলে নানাবিধ হাড়ের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে পায়।

এনার্জির ঘাটতি দূর করে

আমাদের মধ্যে অনেকে মনে করেন, যে শরীরচর্চা করলে ক্লান্তি বেড়ে যায়। কিন্তু বিষয়টি একেবারে উল্টো। গবেষণায় দেখা গেছে, টানা ৬ সপ্তাহ শরীরচর্চা করলে ক্লান্ত লাগার প্রবণতা একেবারে কমে যায়।

ত্বকের সৌন্দর্য বেড়ে যায়

ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতেও শরীরচর্চার কোনও বিকল্প নাই। গবেষণায় দেখা গেছে, শরীরচর্চা করার সময় ঘামের সঙ্গে শরীরের অন্দরে জমে থাকা টক্সিক উপাদান বেরিয়ে যেতে শুরু করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই অক্সিডেটিভ স্ট্রেস কমতে থাকে। সেই সঙ্গে ত্বকের অন্দরে রক্তের সরবরাহ এতটা বেড়ে যায় যে স্কিন উজ্জ্বল এবং প্রাণচ্ছ্বল হয়ে ওঠে।

অনিদ্রার সমস্যা দূর হয়

আমাদের মধ্যে অনেকের অনিদ্রার সমস্যায় ভোগেন। গবেষণায় দেখা গেছে, সপ্তাহে কম করে ১৫০-১৬০ মিনিট শরীরচর্চা করলে স্লিপ কোয়ালিটির প্রায় ৬৫ শতাংশ উন্নতি ঘটে। এতে অনিদ্রার সমস্যা দূর হয়ে যায়।

যন্ত্রণা কমায়

শরীরচর্চা করার সময় দেহের সচলতা যেমন বৃদ্ধি পায়, তেমনি শরীরের ভেতরের শক্তিও বাড়ে। এতে একদিকে যেমন ব্যথা সহ্য করার ক্ষমতা বাড়ে, তেমনি শরীরে বাসা বেঁধে থাকা যন্ত্রণা কমতেও সময় লাগে না।

তথ্য: বোল্ডস্কাই

/এমডিপি/

লাইভ

টপ