ব্যানানা মিল্কশেকের যত উপকারিতা

Send
আহমেদ শরীফ
প্রকাশিত : ১৭:১৭, জানুয়ারি ২৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৪৬, জানুয়ারি ২৭, ২০২০

কলা আর দুধ দুটোই পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ খাবার। প্রতিদিন সুষম খাবারের পাশাপাশি এক গ্লাস ব্যানানা মিল্কশেক আপনাকে সুস্থ রাখতে পারে।


কলার পুষ্টিগুণ

  • কলায় প্রচুর ভিটামিন, আঁশ ও মিনারেল থাকে। মূলত পটাশিয়াম বেশি থাকে কলায়, যা শরীরের সুস্থতার জন্য খুব জরুরি।
  • কলায় থাকা আঁশ শরীর থেকে টক্সিন বের করতে সহায়তা করে।
  • কলায় যে শর্করা থাকে, তা গ্লুকোজের বিপাক উন্নত করে ও ওজন কমায়।  

দুধের পুষ্টিগুণ

  • আমাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকার জন্য দুধ এক অপরিহার্য খাবার। এতে থাকা ক্যালসিয়াম ও প্রোটিন হাড় ও মাংসপেশি মজবুত করে।
  • হাড় মজবুত করার পাশাপাশি দুধে থাকা ক্যালসিয়াম দেহকোষ ঠিক রাখে, প্যারাথাইরয়েড হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখে ও প্রোটিনকে সক্রিয় রাখে।
  • পূর্ণ ননীযুক্ত দুধ শরীরের স্থুলতা কমায়।
  • দুধ রক্তচাপ কমাতে, ইনসুলিন উৎপাদনে ও বিপাক প্রক্রিয়ায় সহায়তা করে।

কলা ও দুধের সমন্বিত গুণ

  • দুধ ও কলা একসাথে মিল্কশেক হিসেবে খেলে শরীরে  প্রয়োজনীয় প্রোটিন, ভিটামিন, আঁশ ও মিনারেল পাওয়া যায়।
  • ওয়ার্কআউট অর্থাৎ ব্যায়ামের পর মিল্কশেকের সাথে বাদাম, কোকো পাউডার মিশিয়ে খেলে এনার্জি পাবেন দ্রুত।
  • কলা আর দুধের মিশ্রণে তৈরি মিল্কশেক আপনার ওজন বাড়াতে পারে। কারণ এতে পর্যাপ্ত পুষ্টি উপাদান আছে। এতে থাকা প্রোটিন মাংসপেশি মজবুত করবে, কার্বোহাইড্রেট যোগাবে শক্তি আর ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস হাড় মজবুত করবে। পুষ্টিবিদদের মতে ওজন বাড়াতে দিনে সুষম খাবারের পাশাপাশি দুই গ্লাস ব্যানানা মিল্কশেক খাওয়া উচিৎ।

তথ্যসূত্র: স্টাইলক্রেজ

/এনএ/

লাইভ

টপ