চলছে চিত্র প্রদর্শনী ‘মুক্তিযুদ্ধ ও নৈসর্গিক বাংলাদেশ’

Send
জুবলী রাহামাত
প্রকাশিত : ১৩:১৫, মার্চ ০৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:১৫, মার্চ ০৩, ২০২০

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও মহান মুক্তিযুদ্ধকে উৎসর্গ করে ‘মুক্তিযুদ্ধ ও নৈসর্গিক বাংলাদেশ’ শীর্ষক একক তৈলচিত্র প্রদর্শনীর শুরু হয়েছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালা মিলনায়তনে। প্রদর্শনীতে শিল্পী আখতার মাহমুদ কাজলের ১০২টি তৈলচিত্র স্থান পেয়েছে।



চিত্র প্রদর্শনীটির উদ্বোধন ঘোষণা করেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের চিফ প্রসিকিউটর ও একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষা সৈনিক গোলাম আরিফ টিপু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সমরজিৎ রায় চৌধুরী। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকি।
সমরজিৎ রায় চৌধুরী বলেন, ‘ছবি আঁকা সাধনার কাজ। কাজল এই কাজটি অনেকদিন ধরেই করে আসছে। কাজল যেভাবে বাংলাদেশের গ্রাম-বাংলার সৌন্দর্য ও মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিকে তুলে ধরেছে, তা প্রশংসার দাবি রাখে।’ শিল্পী আখতার মাহমুদ কাজল বলেন, ‘স্বাধীনতা সংগ্রাম, বঙ্গবন্ধু ও আমার দেশকে বুকের গভীর থেকে তুলে ধরতে আমার এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।’

একক তৈলচিত্রের এই প্রদর্শনীর ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন গোলাম আরিফ টিপু। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভাষাসংগ্রামী গোলাম আরিফ টিপু বলেন, ‘শিল্পী কাজলকে আমি শিশুকাল থেকেই চিনি। শৈশবেই তার প্রতিভার প্রমাণ পেয়েছিলাম। মুক্তিযুদ্ধের আবেগ আর চেতনাই ক্যানভাসজুড়ে ফুটে উঠেছে শিল্পী কাজলের তুলির আঁচড়ে।’ গ্যালারি ঘুরে দেখা গেল ক্যানভাসজুড়ে মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাপ্রবাহ। কোথাও পাক হানাদার বাহিনীর নির্যাতন, কোনওটাতে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক সেই ভাষণ, কোথাও মুক্তিযোদ্ধাদের অভিযানের প্রস্তুতির ছবি। রঙ-তুলির আঁচড়ে প্রত্যেকটি চিত্রপটে ঠাঁই পেয়েছে বাঙালির মুক্তিসংগ্রামের অবয়ব। আবার কোনও ক্যানভাসে দুরন্ত শিশুদের প্রাণোচ্ছলতার প্রতিকৃতি। কোনওটাতে গ্রাম বাংলায় ছড়িয়ে থাকা অসাধারণ সৌন্দর্য। তেল রঙের জমিনে আঁকা ছবিগুলোর প্রতিটি অবয়বে উদ্ভাসিত হয়েছে বাঙালির সংগ্রাম ও বাংলার সৌন্দর্যের ভিন্ন অভিন্ন চিত্র।

প্রদর্শনীটি চলবে আগামী ১১ মার্চ পর্যন্ত।

/এনএ/

লাইভ

টপ