পরিবারের ‘স্ক্রিন টাইম’ কমাবেন যেভাবে

Send
আহমেদ শরীফ
প্রকাশিত : ১৪:০০, মার্চ ১৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:০০, মার্চ ১৬, ২০২০

সময়টা এখন ডিজিটাল। টিভি স্ক্রিন, কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইল স্ক্রিনে  তাই নিজের অজান্তেই বুঁদ হয়ে থাকি আমরা। ঘণ্টার পর ঘণ্টা টিভির প্রিয় সিরিজ বা মুভি, কম্পিউটার বা মোবাইলে প্রিয় গেম অথবা সোশ্যাল মিডিয়ায় বিনোদন খুঁজি সবাই। তবে এটি যে কতোটা ক্ষতিকর, সেই সম্পর্কে আমরা অনেকেই ওয়াকিবহাল না। এটি আমাদের শরীর ও মস্তিষ্কে ভীষণ বাজে প্রভাব ফেলে। বড়দের মতো পরিবারের শিশুরাও এই পথে এগিয়ে চলছে এখন। ডিজিটাল স্ক্রিন থেকে নিজের ও পরিবারের সদস্যদের  দূরে রাখতে কিছু উপায় অবলম্বন করা জরুরি।


শিডিউল তৈরি করুন
টিভি, ল্যাপটপ বা কম্পিউটার স্ক্রিনের সামনে আপনি ও পরিবারের অন্য সদস্যরা কতক্ষণ বসবেন, তার একটি শিডিউল করে ফেলুন। এতে স্ক্রিনের সামনে অতিরিক্ত সময় কাটানো বন্ধ হবে।  
বিশেষ দিন নির্ধারণ করুন
সপ্তাহে কোন দিনগুলোতে টিভি বা কম্পিউটারের সামনে বেশি বসবেন, তা নির্ধারণ করে রাখুন। সপ্তাহের যেদিন টিভিতে বিশেষ বা পছন্দের অনুষ্ঠান দেখানো হয়, সে দিনগুলোতে টিভি একটু বেশি দেখতেই পারেন। তবে তা অবশ্যই অতিমাত্রায় না হওয়াই উচিৎ। সেই সাথে সন্তানকে ভালো পড়ালেখা বা ভালো কাজের পুরস্কার হিসেবে টিভি দেখার সুযোগ দিতে পারেন। এমনকি সপ্তাহে কম সময় টিভি দেখে সন্তান যদি আপনার কথা মতো  চলে, তাহলে তাকে আরও কিছুক্ষণ টিভি দেখার সুযোগ দিয়ে পরের সপ্তাহে একই ভাবে কম টিভি দেখার জন্য অনুপ্রেরণা দিন। ঘন্টার পর ঘন্টা টিভি সিরিজ বা মুভি দেখতে নিরুৎসাহিত করে সন্তানদের অন্য কাজে উৎসাহ দিতে পারেন।
প্রযুক্তিমুক্ত এলাকা
প্রযুক্তি ও নতুন সব গ্যাজেট আমাদের আবেগ, অনুভূতিগুলোকে দিন দিন ভোঁতা করে দিচ্ছে। তাই বাসায় প্রযুক্তিমুক্ত এলাকা গড়ে তুলুন। সে এলাকায় কোনও ধরনের মোবাইল, গ্যাজেট ব্যবহার, টিভি দেখা নিষিদ্ধ করুন। বিশেষ করে খাবারের টেবিলে কোনও ধরনের মোবাইল বা গ্যাজেট ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। সেক্ষেত্রে  বসার ঘরে, বারান্দায় বা ছাদে পরিবারের সবাইকে নিয়ে মজার কোনও কাজ করার পরিকল্পনা করতে পারেন। এতে করে পরিবারের স্ক্রিন টাইম যেমন কমবে, তেমনি পরিবারের সদস্যদের মাঝে বন্ধন দৃঢ় হবে।
বেডরুমে কোনও স্ক্রিন নয়
আপনার বা সন্তানদের শোয়ার ঘরে টিভি রাখবেন না। কারণ শোয়ার ঘরে টিভি রাখলে রাতজুড়ে টিভি দেখার প্রবণতা দেখা দেয়। একইভাবে ঘুমানোর আগে মোবাইল ফোন ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন।
অতিমাত্রায় গ্যাজেট ব্যবহারের ক্ষতি সম্পর্কে জানুন
অবিরাম টিভি দেখা বা নেটফ্লিক্সে কোনও সিরিজের একাধিক এপিসোড দেখা বা একের পর এক ছবি দেখায় কী ধরনের শারীরিক ও মানসিক ক্ষতি হতে পারে, তা নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করুন। কীভাবে নিজেদের লাইফস্টাইল আরও নিয়ন্ত্রণ করা যায়, তার ছক  করুন। মোবাইলের স্ক্রিনে বেশিক্ষণ ঝুঁকে থাকলে ঘুম কমে যাওয়া, মাথা ব্যথাসহ শরীর ও মনের যেসব ক্ষতি হয়, তা বিবেচনা করে যথা সম্ভব স্ক্রিন থেকে দূরে থাকার পরিকল্পনা করুন এখনই।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

/এনএ/

লাইভ

টপ