বাথরুম থাকুক জীবাণুমুক্ত

Send
লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:১৮, মার্চ ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:২৫, মার্চ ২২, ২০২০

ভাইরাস/ব্যাকটেরিয়ার আঁতুড়ঘর বলা হয় বাথরুমকে। ভাইরাস আতঙ্কের এই সময়ে সবকিছুর মতো তাই বাথরুমও রাখা চাই জীবাণুমুক্ত। কিছু সহজ বিষয় মাথায় রাখলে খুব সহজেই বাথরুম পরিষ্কার রাখতে পারবেন। জেনে নিন প্রয়োজনীয় টিপস।

  • বাথরুম যতটা সম্ভব শুকনো রাখুন। ভেজা ও স্যাঁতসেঁতে পরিবেশে জীবাণু জন্মে বেশি।
  • বাথরুম সবসময় বন্ধ করে রাখবেন না। এতে বাথরুমের পরিবেশ স্যাঁতস্যাঁতে হয়ে যায়। খুব অসুবিধা হলে সুতির পর্দা ঝুলিয়ে দিন।
  • বাথরুমে ধূমপান করবেন না।
  • প্রতিদিন কিছুটা সময় বাথরুমের জানালা খুলে রাখুন যেন বাতাস চলাচল করতে পারে।
  • ভেজা গামছা বা তোয়ালে বাথরুমের হ্যাঙ্গারে মেলে দেবেন না। এতে বাথরুমে ভেজাভাব থেকে যায়।
  • সুগন্ধি মোম জ্বালাতে পারেন বাথরুমে। ঘরে রুম ফ্রেশনার স্প্রে করার সময় বাথরুমেও স্প্রে করে দিন। বাথরুমের ভেতর ছোট টবে গাছ রাখুন। দেখতে ভালো লাগবে আবার পরিবেশও সতেজ থাকবে।
  • বাথরুমের স্যান্ডেল আলাদা রাখুন।
  • বাথরুমের সামনে রবারের অ্যান্টি স্কিড ম্যাট রাখুন। প্রত্যেকবার বাথরুমে ঢোকার সময় স্যান্ডেল মুছে বাথরুমে ঢুকুন। বের হওয়ার সময়ও পা মুছে বের হোন।
  • বাথরুমের বেসিন, কমোড এবং বাথটাব পরিষ্কার রাখার জন্য আলাদা আলাদা ব্রাশ এবং স্ক্রাবিং প্যাড রাখুন। প্রতিবার ব্যবহারের পর এগুলো ভালোভাবে ধুয়ে নিন। শুকনো হওয়ার পর ব্রাশ হোল্ডারে রাখুন। বাথরুম ফিটিংস পরিষ্কার করার পর অবশ্যই অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল লিক্যুইড দিয়ে মুছে নেবেন। বছরে একবার বাথরুম পরিষ্কারের ব্রাশ, মব বদলে ফেলুন।
  • কমোড পরিষ্কার করার জন্য বেকিং পাউডার ব্যবহার করতে পারেন। কমোড একবার ফ্ল্যাশ করে বেকিং পাউডার ছড়িয়ে দিন। একঘণ্টা রেখে আবার ফ্ল্যাশ করুন। কমোড পরিষ্কার হওয়ার পাশাপাশি দুর্গন্ধও দূর হবে।
  • বাথরুমের কলে মরিচা ধরলে বাসন মাজার লিক্যুইড সাবানের সঙ্গে ভিনেগার মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে দাগ ধরা জায়গায় ভালো করে ঘষে নিন। এবার সামান্য গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • বাথরুমের টাইলস পরিষ্কার করার জন্য একটি স্প্রে বোতলে সমপরিমাণ ভিনিগার এবং পানি মিশিয়ে নিন। টাইলসে মিশ্রণটি স্প্রে করে ব্রাশ দিয়ে ঘষে নিন। এরপর পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • বেসিনের হলুদভাব দূর করতে অর্ধেক লেবু নিয়ে ভালো করে ঘষুন। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন। বেসিন ঝকঝক করবে।
  • আয়নার মেটালের ফ্রেম, দরজার নব বা অন্যান্য মেটালের জিনিস পরিষ্কার করার জন্য মাসে দুইবার কাপড়ে লেবুর রস দিয়ে ঘষে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রাখুন।
/এনএ/

লাইভ

টপ