ক্যারিয়ার বেছে নিতে সন্তানকে যেভাবে সাহায্য করবেন

Send
আহমেদ শরীফ
প্রকাশিত : ১৬:৩৯, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৪৩, অক্টোবর ২৮, ২০২০

ছোটবেলায় নিজের সন্তানকে ইঞ্জিনিয়ার, ডাক্তার হিসেবে গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেন প্রায় সব বাবা-মা। কিন্তু সন্তান যত বড় হতে থাকে, তার স্বপ্ন ধীরে ধীরে তার মতো করেই পাল্টাতে থাকে। এক পর্যায়ে ক্যারিয়ার কেমন হবে, কোন পেশায় জড়াবে আপনার সন্তান, তা সে নিজেই পছন্দ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। এক্ষেত্রে সন্তানের ইচ্ছেকে প্রাধান্য দেওয়াটা ভীষণ জরুরি। সন্তানকে উৎসাহ দেওয়া, ইচ্ছেশক্তির মাধ্যমে পাহাড়ও যে অতিক্রম করা যায়, সেটা তাকে বুঝানোর দায়িত্ব আপনারই।

আপনার স্বপ্ন সন্তানের উপর চাপিয়ে দেবেন না
আপনার সন্তান স্বতন্ত্র এক মানুষ। তাই তার নিজের বিবেচনাবোধের মাধ্যমে, নিজের ইচ্ছায় তাকে  ক্যারিয়ার বা পেশা বেছে নেওয়ার সুযোগ দিন। এটা ঠিক যে বাবা-মা হিসেবে সন্তানকে সঠিক ক্যারিয়ার বেছে নেওয়ার পথ দেখানো আপনার দায়িত্ব। তবে যখন সে নিজেই তার পথ বেছে নিচ্ছে, তখন তাকে বাধা না দিয়ে উৎসাহ দেওয়াটাই ভালো।  
সন্তান যেন তার আগ্রহ উপলব্ধি করতে পারে
অনেক সময় সন্তানের মানসিক ও শারীরিক সক্ষমতার সাথে তার পছন্দের ক্যারিয়ার খাপ নাও খেতে পারে। সেক্ষেত্রে তার ক্যারিয়ারকে বাতিল করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত আপনার না নেওয়াই ভালো। তাকে নিজের শক্তি, সীমাবদ্ধতা বোঝার সুযোগ দিন। কোন কাজে তার আগ্রহ বেশি, তা উপলব্ধি করার সুযোগ দিন তাকে। এক্ষেত্রে সন্তানের ভেতরকার শক্তিগুলোকে বের করে আনতে, সেই শক্তিতে তাকে ফোকাস করতে সাহায্য করুন।
ক্যারিয়ার কাউন্সিলর বা মেন্টরের পরামর্শ নিতে বলুন
হয়তো সন্তানের জন্য কোন পেশাটা উত্তম হবে, তা আপনিও বুঝে উঠতে পারছেন না। এক্ষেত্রে তাকে একজন ক্যারিয়ার কাউন্সিলর বা মেন্টরের দিক নির্দেশনা নেওয়ার পরামর্শ দিন।
সন্তানকে বিভিন্ন কাজে যুক্ত করুন
আর্টস হোক বা পরিবেশ, ভ্রমণ হোক বা বিজ্ঞান, সব বিষয়ে যেন আপনার সন্তান জেনে বুঝে সম্ভাবনা নিয়ে বেড়ে উঠে সেই সুযোগ করে দিন তাকে। সেসবের মাঝে কোন বিষয়ে সে বেশি আগ্রহী তা বুঝতে চেষ্টা করুন। ঐ বিষয়ে তাকে আরও জানার, জ্ঞান আহরণ ও দক্ষ হয়ে উঠার সুযোগ করে দিন।
উদাহরণ তৈরি করুন
সন্তানদের উপর বাবা মায়েরাই সবচেয়ে বেশি প্রভাব বিস্তার করে। তাই আপনি কোন পেশা ভালোবেসে বেছে নিচ্ছেন, তাতে কতোটা আগ্রহ, অনুরাগ প্রকাশ করছেন, এসব কিছু সন্তান আপনাকে দেখে শিখবে। তাই যে কাজটা ভালোবাসেন আপনি, তাকেই পেশা হিসেবে বেছে নিন। এটাই সন্তানের জন্য উদাহরণ তৈরি করবে।
ধৈর্য্য ধরুন
পেশার ক্ষেত্র ছাড়াও সব ক্ষেত্রে ধৈর্য্য ধারণ করুন। সন্তানকে বুঝতে দিন ক্যারিয়ার ও জীবনের চলার পথে ধৈর্য্য কত গুরুত্বপূর্ণ। পেশাগত ও ব্যক্তিগত জীবনে সাফল্য পেতে হলে সুযোগ সব সময় আসবে, এই শিক্ষাটা দিন সন্তানকে।

তথ্যসূত্র: পিংকভিলা

/এনএ/

লাইভ

টপ