নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সহিষ্ণু আড্ডা’

Send
জাককানইবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:০০, নভেম্বর ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:০৭, নভেম্বর ১৭, ২০১৯

আন্তর্জাতিক সহিষ্ণু দিবস উপলক্ষে ইনলেপ্ট এবং উইম্যান পিস ক্যাফের আয়োজনে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাককানইবি) অনুষ্ঠিত হলো ‘সহিষ্ণু আড্ডা’। শনিবার (১৬ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের গাহি সাম্যের গান মঞ্চের পাশে সন্ধ্যায় ২ ঘণ্টাব্যাপী আড্ডাটি শুরু হয়।


নৃবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক জান্নাতুল নাঈমের সঞ্চালনায় সহিষ্ণু আড্ডায় উপস্থিত ছিলেন ইনলেপ্টের প্রতিষ্ঠাতা স্থানীয় সরকার ও নগর উন্নয়ন বিভাগের প্রভাষক সাদিক হাসান শুভ, উইম্যান পিস ক্যাফে ও ইনলেপ্টের সদস্যসহ বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের শিক্ষার্থী।
বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে আড্ডাটি। ইউনেস্কো ঘোষিত এই দিনটি ১৯৯৫ সাল থেকে পালিত হয়ে আসছে। আড্ডায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সহিষ্ণুতাজনিত নানান সমস্যা উঠে আসে। সাদা চামড়ার মানুষের কাছে কালো চামড়ার মানুষের গ্রহণযোগ্যতার প্রশ্ন, বর্ণবিদ্বেষের গন্ধ, ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রগতির কতটা অন্তরায় এবং সম্প্রতি রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে সেখানকার মানুষের মধ্যে বিরাজমান সহনশীলতা অভিজ্ঞতা নিয়ে আলোচনা করেন ইনলেপ্টের প্রতিষ্ঠাতা সাদিক হাসান শুভ।
উইম্যান পিস ক্যাফের সভাপতি মাহমুদা স্বর্ণা বলেন, ‘মানুষ যত অসহিষ্ণু হবে, ততই সমাজে অশান্তি ও হিংসা তীব্র হয়ে ছড়িয়ে পড়বে। যদি সহনশীলতা না থাকে, তা হলে সংঘর্ষ অনিবার্য। উদার মানসিকতাই পারে আধুনিক শান্তিপূর্ণ সমাজ গড়ে তুলতে।’
উল্লেখ্য, ইনলেপ্ট একটি সহনশীল সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে এবং উইম্যান পিস ক্যাফে শান্তিপূর্ণ সমাজ প্রতিষ্ঠায় নারী ক্ষমতায়ন, নারীদের উদ্ভাবনী চিন্তার প্রয়োগ-বাস্তবায়ন এবং নারী উদ্যোক্তা তৈরিতে একটি সৃষ্টিশীল প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে। ইউএন উইমেন-এর এমপাওয়ার্ড উইম্যান পিসফুল কমিউনিটিজ প্রকল্পের আওতায় সেন্টার ফর পিস অ্যান্ড জাস্টিস (সিপিজে), ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায় দেশে প্রথমবারের মত দুইটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাককানইবি ও বেরোবি) প্রতিষ্ঠিত হয় এই পিস ক্যাফে।

/এনএ/

লাইভ

টপ