বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইইই শিক্ষার্থীদের বিভাগ একীভূতকরণের বিপক্ষে মানববন্ধন

Send
বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২১:৫৫, জানুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৫৭, জানুয়ারি ২২, ২০২০

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (ইটিই) বিভাগকে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের সাথে একীভূতকরণের দাবির বিপক্ষে মানববন্ধন করেছে ইইই বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

আজ বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের জয়বাংলা চত্বরে এ মানববন্ধন করেন তারা। এ সময় শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘ইটিই বিভাগের শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন যাবত যে দাবিটি করে আসছেন সেটি সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। তাদের পাঠ্যক্রম এবং আমাদের পাঠ্যক্রমে প্রায় ৪০ শতাংশ অমিল রয়েছে। এছাড়া আমাদের বিভাগে বর্তমানে যে পরিমাণ শিক্ষার্থী রয়েছে তারাই পর্যাপ্ত ল্যাব এবং ক্লাসরুম সুবিধা পাচ্ছে না এমতাবস্থায় নতুন শিক্ষার্থী যুক্ত করা হলে আমাদের বিভাগের শিক্ষার মান এবং পরিবেশ নষ্ট হবে।’

এসময় শিক্ষার্থীরা আরও বলেন যে, ‘ইঞ্জনিয়ারিং অনুষদে এমন অনেক শিক্ষার্থী রয়েছে যাদের অবস্থান মেধাতালিকায় বর্তমান ইটিই শিক্ষার্থীদের তুলনায় ওপরে ছিলো এবং তাদের প্রথম পছন্দ ইইই হলেও তারা ইইই বিভাগে ভর্তির সুযোগ না পেয়ে বর্তমানে অন্য বিভাগে পড়ছে। যদি আন্দোলনের প্রেক্ষিতে ইটিইকে ইইই এর সাথে একীভূত করা হয় তবে ঐ সকল শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অন্যায় করা হবে। আর এটি খুবই স্বাভাবিক বিষয় যে সকল বিভাগের চাকুরির সুবিধা একইরকম থাকবেনা কিন্তু তাই বলে একটি বিভাগকে অন্য বিভাগের সাথে একীভূতকরণ সমাধান হতে পারেনা।’

এসময় শিক্ষার্থীরা দুই বিভাগ একীভূত করার প্রক্রিয়া গ্রহণ করা হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন।

এদিকে ইটিই বিভাগকে ইইই বিভাগের সাথে একীভূতকরণের দাবিতে অনশন কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছে ইটিই শিক্ষার্থীরা। এখন পর্যন্ত অনশন কর্মসূচিতে ১৩ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন যাদের মধ্যে ৬ জন বর্তমানে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রাজিউর রহমান জানান, ‘বিষয়টি সমাধানে গত ২০ জানুয়ারি ১৬ সদস্য বিশিষ্ট একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ২৫ জানুয়ারি বিশেষজ্ঞ কমিটির প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বিশেষজ্ঞ কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।’

উল্লেখ্য,  ইটিই গ্র্যাজুয়েটদের চাকরির সুযোগ ক্রমাগত কমে যাচ্ছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৯ সালের ১৭ অক্টোবর থেকে ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে আন্দোলন করছে ইটিই বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

/এফএএন/

লাইভ

টপ
X