X
রবিবার, ১৪ আগস্ট ২০২২
৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

চট্টগ্রাম ও কলম্বো বন্দরের মধ্যে যোগাযোগ বাড়াতে চায় বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০১ জুলাই ২০২২, ০১:২৭আপডেট : ০১ জুলাই ২০২২, ০১:২৮

চট্টগ্রাম ও কলম্বো বন্দরের মধ্যে নৌ যোগাযোগ বাড়াতে চায় বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। বুধবার এ সংক্রান্ত একটি কনসালটেশন ফোরামের আয়োজন করে কলম্বোতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাস। দূতাবাস থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

অর্থনৈতিক কূটনৈতিক সপ্তাহ উপলক্ষে এই কনসালটেশন ফোরামের আয়োজন করা হয়। এর উদ্দেশ্য ছিল দুই সমুদ্র বন্দরের মধ্যে নৌ চলাচল সংক্রান্ত সার্বিক বিষয়ের ওপর আলোকপাত করে এ সংক্রান্ত সমঝোতা বৃদ্ধি এবং দুই বন্দরের মধ্যকার অংশীদারিত্ব আরও সুসংহত করা।

বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার বন্দর কর্তৃপক্ষ, টার্মিনাল অপারেটর, মেইন লাইন অপারেটর, ফ্রেইট ফরোয়ার্ডার্স এবং অন্যান্য সংশ্লিষ্ট সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান এবং বন্দর ব্যবহারকারী যেমন তৈরি পোশাক রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা ফোরামে তাদের বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

শ্রীলঙ্কায় নিযুক্ত বালাদেশের রাষ্ট্রদূত তারেক মো. আরিফুল ইসলাম তার স্বাগত বক্তব্যে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন এবং কলম্বো বন্দরের জন্য তা যে প্রভাব তৈরি করেছে সেটি ব্যাখ্যা করেন।

করোনা মহামারি ও বর্তমানে ইউক্রেন যুদ্ধের প্রেক্ষিতে বৈশ্বিক সামগ্ৰিক পণ্য বন্টন ব্যবস্থায় প্রতিবন্ধকতার কারণে নৌ পরিবহন ব্যবস্থাপনায় নতুন ধারা তৈরি হচ্ছে । তিনি সেই বাস্তবতায় কলম্বো বন্দরের পক্ষ থেকে আরও প্রণোদনার ব্যবস্থা করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

শ্রীলঙ্কা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ড. প্রশান্থা জায়ামান্না কলম্বো বন্দরের বিদ্যমান সুযোগ সুবিধা এবং চলমান উন্নয়ন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ব্যাখ্যা করেন। ২০২৫-২৬ সালের মধ্যে এটি সম্পন্ন হলে কলম্বো সমুদ্র বন্দর বছরে প্রায় ১৫ মিলিয়ন কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ের সক্ষমতা অর্জন করবে।

তিনি আরও উল্লেখ করেন, শ্রীলঙ্কা সরকারের মালিকানাধীন জায়া কনটেইনার টার্মিনালে বাংলাদেশি ফিডার ভেসেলের জন্য অগ্রাধিকারমূলক নোঙ্গরের সুবিধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

এই অগ্রাধিকারমূলক নোঙ্গরের জন্য বাংলাদেশ দূতাবাস দীর্ঘদিন যাবৎ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল।

শ্রীলঙ্কা বন্দর কর্তৃপক্ষ, বেসরকারি টার্মিনাল পরিচলনাকারী এবং সংশ্লিষ্ট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বাংলাদেশকে ধারাবাহিক অগ্রাধিকার দেওয়ার ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিয়েছে।

সম্প্রতি গণমাধ্যমে কলম্বো বন্দর সংক্রান্ত নেতিবাচক প্রচারের বিষয় উল্লেখ করে তারা জানান, শ্রীলঙ্কার সংকটাপন্ন অবস্থাতেও কলম্বো বন্দর পরিচালনায় কোনও সমস্যা হয়নি। এক্ষেত্রে শিপিং খাত সংশ্লিষ্ট স্টেকহল্ডারদের মধ্যে সার্বক্ষণিক যোগাযোগের ওপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করা হয়।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধি উল্লেখ করেন, গত বছর কলম্বো বন্দরের মাধ্যমে বাংলাদেশের কনটেইনার পরিবহন উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বেড়েছে। এই খাত সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা কলম্বো বন্দর ব্যবহারের অভিজ্ঞতা, উদ্ভূত ধারা এবং শিপিং কার্যক্রমের ভবিষ্যৎ নিয়ে বিশদ আলোচনা করেন।

সবশেষে একটি মতবিনিময় সেশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে উভয় পক্ষ থেকে প্যানেল আলোচকরা অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। এতে করে চট্টগ্রাম-কলম্বো নৌ যোগাযোগ সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আরও সুস্পষ্ট ধারণা তৈরি হয়।

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে কর্ণফুলী গ্রুপ এবং এইচ আর লাইনসের সিনিয়র নির্বাহী পরিচালক আনিস উদদৌলা, ডিএসভি লজিস্টিকসের বাংলাদেশ প্রধান এবং মোহাম্মদী গ্রুপের পরিচালনা এবং বিক্রয় বিভাগের প্রধান ভার্চুয়ালি তাদের বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

/এসএসজেড/এমপি/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ঘাতক ট্যাংকের পথে আলোর মিছিল
ঘাতক ট্যাংকের পথে আলোর মিছিল
আমার বাড়িতে সিবিআই গেলে কী করবেন, প্রশ্ন মমতার
আমার বাড়িতে সিবিআই গেলে কী করবেন, প্রশ্ন মমতার
ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ গ্রেফতার
ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ গ্রেফতার
এ বিভাগের সর্বশেষ
আমার বাড়িতে সিবিআই গেলে কী করবেন, প্রশ্ন মমতার
আমার বাড়িতে সিবিআই গেলে কী করবেন, প্রশ্ন মমতার
চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই তাইওয়ানে মার্কিন আইনপ্রণেতারা
চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই তাইওয়ানে মার্কিন আইনপ্রণেতারা
ভরা আদালতে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যা
ভরা আদালতে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যা
পেলোসির পর তাইওয়ানে আরও একদল মার্কিন আইনপ্রণেতা
পেলোসির পর তাইওয়ানে আরও একদল মার্কিন আইনপ্রণেতা
ভারতীয় ধনকুবের ঝুনঝুনওয়ালা আর নেই
ভারতীয় ধনকুবের ঝুনঝুনওয়ালা আর নেই