চবির দু’শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ

Send
চবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৯:০১, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:১৫, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৯

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়পরীক্ষার কাজে অনিয়মের অভিযোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যলয়ের সংস্কৃতি বিভাগের দুই শিক্ষককের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। ওই কমিটির দেওয়া প্রতিবেদন শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫২০তম সিন্ডিকেট সভায় অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।  

ওই দুই শিক্ষকের মধ্যে সংস্কৃতি বিভাগের সাবেক সভাপতি সুপ্তিকণা মজুমদারকে চাকরিচ্যুত এবং বর্তমান সভাপতি শিপক কৃষ্ণ দেবনাথকে পদাবনতির সুপারিশ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

একাধিক সিন্ডিকেট সদস্য একথা জানিয়েছেন। আগামী ১০ দিনের মধ্যে কেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর সুপারিশও করা হয়েছে সিন্ডেকেটে।

এ ব্যাপারে সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. সুলতান আহমদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘দুই শিক্ষকের অভিযোগ খতিয়ে দেখতে গঠিত কমিটির প্রতিবেদন সিন্ডিকেটে অনুমোদন দেওয়া হয়। তবে তার আগে দুই জনকে আগামী ১০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর সুপারিশও করা হয়েছে।’

২০১৩ সালের তৃতীয় বর্ষ (সম্মান) পরীক্ষার ৩০৮নং কোর্সের (প্রাচীন ভারতীয় সমাজ ও সংস্কৃতি) পরীক্ষার কাজে দায়িত্বে অবহেলা, অনিয়ম, দুর্নীতি এবং পরীক্ষার খাতা জালিয়াতির অভিযোগ তুলে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য বরাবর আবেদন করেন উক্ত বিভাগের শিক্ষক লিটন মিত্র। এ নিয়ে ২০১৫ সালের ২৭ জুন দেওয়া এই অভিযোগ তদন্ত করতে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য। ওই কমিটির আহ্বায়ক করা হয় উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. এম. আবদুল গফুরকে। কমিটি গত বছরের ২৭ জুন প্রতিবেদন দেয়। এতে অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পায় কমিটি।

এ ব্যাপারে অধ্যাপক ড. সুপ্তিকণা মজুমদারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরে শিক্ষক শিপক কৃষ্ণ দেবনাথের সঙ্গে তিনি মন্তব্য করতে রাজি হননি।

তবে এ ব্যাপারে নাম প্রকাশ না করা শর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী শিক্ষক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘একজনঅসুস্থ অধ্যাপকের ব্যাপারে প্রশাসনের এমন অমানবিক সিদ্ধান্তে আমরা অত্যন্ত মর্মাহত ও ক্ষুব্ধ। এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসনের নিবর্তন মূলক নীতির ধারবাহিকতা। আমরা অনতিবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার চাই। বিষয়টি প্রত্যাহার করা না হলে আমরা শিগগিরই সংবাদ বিজ্ঞপ্তি বা সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত তুলে ধরবো।’

 

/এসটি/

লাইভ

টপ
X