রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী জাহাজের সুরক্ষায় সংসদে বিল পাস

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০০:১৬, নভেম্বর ১৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:৩১, নভেম্বর ১৩, ২০১৯

জাতীয় সংসদরাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী জাহাজের সুরক্ষায় ‘বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ (সুরক্ষা) বিল-২০১৯’ সংসদে পাস হয়েছে। বিদ্যমান আইনটি বাংলা ভাষায় রূপান্তরের পাশাপাশি যুগোপযোগী করতে বিলটি পাস হয়।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সংসদের বৈঠকে বিলটি পাসের জন্য উত্থাপন করেন নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। পরে বিলটি কণ্ঠভোটে পাস হয়।

এর আগে বিলের ওপর বিরোধী দলীয় একাধিক সদস্যের জনমত যাচাই-বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনী প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নিষ্পত্তি করা হয়।

এই বিলে সমুদ্রপথে বাংলাদেশের বৈদেশিক বাণিজ্যের অন্তত ৫০ শতাংশ পণ্য বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজের মাধ্যমে পরিবহন করতে হবে। ১৯৮২ সালের অধ্যাদেশে ৪০ শতাংশ পণ্য রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী জাহাজে পরিবহনের বিধান ছিল।

পাস হওয়া বিলে বলা হয়েছে, কোনও জাহাজ এই আইনের কোনও বিধান লঙ্ঘন করলে ওই জাহাজ কর্তৃপক্ষকে সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত প্রশাসনিক জরিমানা করা যাবে। আগের অধ্যাদেশে জরিমানার পরিমাণ নির্ধারণ করা ছিল না।

বিলে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ নয় এরূপ কোনও বিদেশি জাহাজ দিয়ে উপকূলীয় অঞ্চলে বালাদেশের বাণিজ্যিক পণ্য পরিবহন করা যাবে না।

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের জাহাজ মালিকরা যেন আরও  জাহাজ কিনতে বা সংগ্রহ করতে আগ্রহী হন সেজন্য নতুন আইনে সুরক্ষা সুবিধা হিসেবে এ নিয়ম রাখা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘এর ফলে বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজের স্বার্থ সংরক্ষিত হবে এবং বাংলাদেশের জাহাজ মালিকরা বেশি বেশি জাহাজ সংগ্রহ বা ক্রয় করলে বাংলাদেশের পণ্য আমদানি-রফতানির জন্য বিদেশি জাহাজ ভাড়া বাবদ বৈদেশিক মুদ্রার সাশ্রয় হবে। বাংলাদেশি নাবিকদের কর্মসংস্থানের সুযোগও ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাবে।

 

 

 

/ইএইচএস/আইএ/

লাইভ

টপ