নতুন এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজের তথ্য যাচাই শুরু ১৮ নভেম্বর

Send
এস এম আববাস
প্রকাশিত : ০০:২০, নভেম্বর ১৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:২৩, নভেম্বর ১৫, ২০১৯

শিক্ষা মন্ত্রণালয়নতুন এমপিওভুক্তির তালিকায় থাকা এক হাজার ৬৫০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) তথ্য যাচাই শুরু হবে আগামী ১৮ নভেম্বর থেকে। যাচাইয়ের পর সঠিক তথ্য সরবরাহ করা প্রতিষ্ঠানের এমপিও ছাড় দেওয়া হবে। আর যেসব প্রতিষ্ঠানের তথ্য মিথ্যা প্রমাণিত হবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, একজন শিক্ষকসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে হাজির হয়ে এমপিওভুক্তির জন্য দাখিল করা তথ্যের সত্যতা প্রমাণ দিতে হবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানদের। অন্যদিকে, আগামী ১৯ নভেম্বরের মধ্যে দেশের সব জেলা শিক্ষা অফিসারকে নির্ধারিত তথ্যের হার্ডকপি বাহক মারফত পাঠাতে বলা হয়েছে। প্রতিষ্ঠান প্রধানদের দেওয়া তথ্যের সঙ্গে শিক্ষা অফিসারদের দেওয়া তথ্য যাচাই করা হবে।

জানতে চাইলে আন্তঃ শিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো যেসব তথ্য দিয়ে এমপিওভুক্ত হয়েছে, সেসব তথ্যের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য প্রতিষ্ঠান প্রধানদের ডাকা হয়েছে। আগামী ১৮ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে পর্যায়ক্রমে নির্ধারিত দিনগুলোতে চলবে তথ্য যাচাইয়ের কাজ।’

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান বলেন, ‘সফটওয়্যারের মাধ্যমে জমা দেওয়া তথ্যের সঙ্গে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের তথ্য মিলিয়ে দেখা হবে।’

গত ১২ নভেম্বর এমপিওভুক্তির তথ্য যাচাইয়ে সাত সদস্যের কমিটি গঠন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ।  বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) এই কমিটিকে পর্যায়ক্রমে এমপিওভুক্ত হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোরও তথ্য যাচাইয়েরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৩ অক্টোবর একযোগে দুই হাজার ৭৩০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির তালিকা প্রকাশ করে সরকার। এর মধ্যে স্কুল ও কলেজ এমপিওভুক্তির সুযোগ পায় এক হাজার ৬৫০টি। এই প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৪৩৯টি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৯৯৪টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৬৮টি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ৯৪টি উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ এবং ৫৬টি স্নাতক (পাস) কলেজ রয়েছে। এরপর গত ১২ নভেম্বর ৬টি ও ১৪ নভেম্বর একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির সুযোগ পায়। 

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এমপিওভুক্তির সুযোগ পাওয়া স্কুল ও কলেজের মধ্যে আগামী ১৮ নভেম্বর ৮৬টি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়; ১৯, ২০ ও ২১ নভেম্বর প্রতিদিন ৭৪টি করে মোট ২২২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ সব মিলিয়ে ৩০৮টি প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সকাল ১০টায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে তথ্য যাচাইয়ের জন্য উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে নতুন এমপিওভুক্ত সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) তথ্য যাচাইয়ের জন্য ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে ডাকা হবে।

যেসব তথ্য যাচাই করা হবে

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন স্তর স্বীকৃতির প্রথম ও শেষ কপি, ২০১৭ সালের শ্রেণিভিত্তিক ভর্তি রেজিস্ট্রার, শ্রেণিভিত্তিক হাজিরা খাতা যাচাই করা হবে।

প্রতিষ্ঠানগুলোর জেএসসি পর্যায়ে ২০১৫ থেকে ২০১৭ সাল, এসএসসি পর্যায়ে ২০১৬ থেকে ২০১৮, এইচএসসি পর্যায়ে ২০১৫ থেকে ২০১৭ এবং স্নাতক (পাস) পর্যায়ে ২০১৪ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ফরম পূরণের প্রিন্ট কপি, রেজিস্ট্রেশনের প্রিন্ট কপি ও বোর্ডের ফলাফল যাচাই করা হবে। এছাড়া অষ্টম শ্রেণি থেকে একাদশ এবং স্নাতক (পাস) শ্রেণির রেজিস্ট্রেশনের জন্য টাকা জমার রশিদ যাচাই করা হবে। 

নীতিমালা অনুযায়ী প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের এসব তথ্য যাচাই কাজ চলবে পর্যায়ক্রমে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, তথ্য যাচাইয়ের সব ধরনের নির্দেশনা পাওয়া যাবে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে। 

 

 

/এসএমএ/এমএএ/

লাইভ

টপ