রোহিঙ্গা নিয়ে চীন ও রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৪:০৫, নভেম্বর ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৪:০৯, নভেম্বর ২১, ২০১৯

রোহিঙ্গা ক্যাম্প (ছবি: টেকনাফ প্রতিনিধি)

আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে চলমান আইনি ব্যবস্থার পূর্ণ সুযোগ নিয়ে ওই দেশের ওপর আরও চাপ অব্যাহত রাখতে চায় বাংলাদেশ। এজন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ মিশন যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে। এর অংশ হিসাবে বুধবার (২০ নভেম্বর) পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন চীন এবং রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে শুধু রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আলোচনা করেছেন।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘গত দুই বছর ধরে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আমরা যোগাযোগ করে চলেছি। এরমধ্যে চীন সরাসরি প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে এবং আমরা চাই রাশিয়াও যেন এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠভাবে যুক্ত হয়।’

তিনি বলেন, ’এই সমস্যা সমাধানের জন্য আমাদের বড় পাচঁটি শক্তিসহ আসিয়ান, ভারত, জাপান, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সঙ্গে আরো ঘনিষ্ট যোগাযোগ রক্ষা করবো।’

আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্ডার আই ইগনাটভের সাথে কয়েকটি নির্দিষ্ট প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রী।

তিনি বলেন,‘প্রস্তাবগুলো রাশিয়া বিবেচনা করবে এবং এই সমস্যা সমাধানে তারা আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে।’

গত এপ্রিলে মোমেন রাশিয়া সফর করেন এবং সম্প্রতি তিনি রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহায়তা চেয়ে একটি চিঠি লিখেছেন বলেও তিনি জানান।

তিনি বলেন, ‘ওই চিঠির জবাবে ল্যাভরভ রোহিঙ্গা ইস্যুতে আরও সম্পৃক্ত হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।’

চীনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, ‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্য গঠিত তিন দেশের কমিটির অগ্রগতির বিষয়ে মন্ত্রীকে অবহিত করেন লি জিমিং।’

গত সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ, চীন ও মিয়ানমারের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা নিউ ইয়র্কে একটি বৈঠক করেন এবং ওই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ত্রিপক্ষীয় কমিটি গঠিত হওয়ার পরে একটি বৈঠক হয়েছে বলেও জানান তিনি।

 

/এসএসজেড/এএইচ/

লাইভ

টপ