মানুষ বাঁচলে, অর্থনীতি বাঁচবে: আতিয়ার রহমান

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:১৫, জুন ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২২, জুন ১৪, ২০২০

প্রস্তবাবিত জাতীয় বাজেটে স্বাস্থ্য ও কৃষি খাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর অধ্যাপক ড. আতিয়ার রহমান বলেছেন, ‘মানুষ বাঁচলে, অর্থনীতি বাঁচবে।‘

রবিবার (১৪ জুন) ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ও ক্যাম্পাস টিভির ফেসবুক পেজে যৌথভাবে ‘জাতীয় বাজেটের প্রতিফলন’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এই কথা বলেন। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় ও উদ্যোক্তাবৃত্তি অনুষদ এই আলোচনার আয়োজন করে।

ড. আতিউর রহমান বলেন, ‘এই বাজেটে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে স্বাস্থ্য ও কৃষির ওপর। সবার আগে মানুষকে বাঁচাতে হবে। মানুষ বাঁচলে, অর্থনীতি বাঁচবে। এই জন্য স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ আরও বাড়াতে হবে এবং একইসঙ্গে গ্রামীণ অর্থনীতিকে বাঁচিয়ে রাখতে কৃষিখাতে বরাদ্দ বাড়াতে হবে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. আতিউর রহমান বলেন, ‘এতো অনিশ্চিত পরিবেশে পৃথিবীর কোনও দেশ আগে বাজেট দেয়নি। এখন যে সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি সেই সংকট আমাদের একার নয়, গোটা পৃথিবীর। এই সময়ে বাজেট হওয়া উচিত টিকে থাকার বাজেট। কিন্তু বাজেটে সেই প্রতিফলন সামান্যই দেখা গেছে।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মো. নুরুল আমিন বলেন, ‘গুরুত্ব অনুসারে এই বাজেটে স্বাস্থ্য খাতে সবচেয়ে বেশি নজর দেওয়া উচিত এবং অর্থমন্ত্রী সেটিই করেছেন। স্বাস্থখাতে বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে এবং করোনা মোকাবিলার জন্য ১০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এর পাশাপাশি কৃষি খাতেও আগের বাজেটের চেয়ে এই বাজেটে বরাদ্দ বেশি। প্রস্তাবিত এই বাজেট বাস্তবায়নে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।’

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি শামস মাহমুদ বলেন, ‘এই বছরটা আসলে টিকে থাকার বছর। মুনাফা নয় বরং টিকে থাকাই সকলের উদ্দেশ্য হওয়া উচিত। এই জন্য অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে হবে।’

শামস মাহমুদ আরও বলেন, ‘এই বাজেটে ৫১ শতাংশ রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু প্রাইভেট সেক্টর এখনও পুরোপুরি খুলে দেওয়া সম্ভব হয়নি।’ এই অবস্থায় রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হবে কিনা সে ব্যাপারে তিনি সন্দেহ প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় ও উদ্যোক্তাবৃত্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মাসুম ইকবাল। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্সের পরিচালক সৈয়দ মিজানুর রহমান। 

/এসএমএ/এনএস/

লাইভ

টপ