‘খিচুড়ি রান্না শিখতে’ বিদেশ ভ্রমণ বাতিল

Send
এস এম আববাস
প্রকাশিত : ২২:২৮, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৫০, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০

প্রথমবারের মতো শতভাগ সরকারের টাকায় দেশের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য শিক্ষার্থীদের জন্য দুপুরে রান্নাকরা খাবার বিতরণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে সম্প্রতি পরিকল্পনা কমিশনে উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) জমা দেওয়া হয়। প্রকল্প প্রস্তাবনায় বিদেশে প্রশিক্ষণে অর্থ বরাদ্দের বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়। তবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সমালোচনাকে প্রোপাগান্ডা হিসেবে আখ্যায়িত করেছে।
অবশেষে বিদেশে ভ্রমণের এই পরিকল্পনা বাতিল করেছে পরিকল্পনা কমিশন। এ বিষয়ে পরিকল্পনা কমিশনের আর্থ-সামাজিক অবকাঠামো বিভাগের প্রধান স্বপন কুমার ঘোষ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘প্রকল্পটি পুনর্গঠন করা হচ্ছে। শুধু এই প্রকল্প নয়, করোনার সময় সব প্রকল্পেরই বিদেশ সফর বাতিল করা হচ্ছে। সরকারের অর্থ সাশ্রয় এখন জরুরি।’ স্থানীয় প্রশিক্ষণের জন্য প্রস্তাবিত ব্যয় বরাদ্দের ১৫ কোটি রাখা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখন করোনার সময় সবকিছুই সংকুচিত হচ্ছে।’

কমিশন সূত্রে জানা গেছে, প্রকল্প পুনর্গঠন করে কোথাও ব্যয় কমানো হবে, আবার কোথাও বাড়ানো হবে।
প্রকল্পটি নিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়। যাতে বলা হয়, খিচুড়ি রান্না শিখতে বিদেশে যাওয়ার জন্য ৫ কোটি টাকা বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। গণমাধ্যমে এই খবর প্রকাশের পর মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এটি নিউজ নয়, প্রোপাগান্ডা। যারা প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে তাদের প্রশিক্ষণের প্রয়োজন আছে? তাই কিছু বরাদ্দ রেখে প্রস্তাব করা হয়েছে।’ বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে তাৎক্ষণিক ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘হৈ চৈ করার মতো কিছু হয়নি। বিএনপি-জামায়াতের লোকজন সাংবাদিকতা পেশা নিয়ে এখানে চলে এসেছেন।’
সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম-আল হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘খিচুড়ি রান্না করা শিখতে যাবে তা নয়, ডিপিপিতে বিদেশে প্রশিক্ষণের একটি কম্পোনেন্ট রয়েছে। সব প্রকল্পেই থাকে। সেটি খিচুড়ি রান্না করা শিখতে নয়, পুরা ব্যবস্থাপনা দেখতে ও অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য কিছু কর্মকর্তাকে বিদেশে প্রশিক্ষণের প্রস্তাব করা হয়েছে।’

/এমআর/এমওএফ/

লাইভ

টপ