‘এখন আমাদের নিজেদের শিল্পে ব্যবহারের মতো পাট নেই’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:২৩, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৭, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

৪পাটের ঘাটতির জন্য শিগগিরই আমাদের পাটকলগুলো বন্ধ হয়ে যেতে পারে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ জুট মিলস অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান পাটোয়ারী। তিনি বলেন, ‘এখন আমাদের নিজেদের শিল্পে ব্যবহারের মতো পাট নেই। এক্ষেত্রে তিন-চার মাসের জন্য আমাদের ফ্যাক্টরি বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে আমাদের এই শ্রমিক থাকবে না। এতে এই শিল্পে আর্থিক অবস্থা খারাপ হয়ে যাবে।’

দেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের আয়োজনে ‘সংকটে পাট’ শীর্ষক বৈঠকিতে তিনি এ কথা বলেন। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকালে শুরু হয় বাংলা ট্রিবিউনের সাপ্তাহিক এই আয়োজন।

পাটের সংকট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরাই একমাত্র কাঁচা পাট রফতানি করি। ভারত কিন্তু কাঁচা পাট রফতানি করে না। তারা তাদের প্রয়োজনে বাংলাদেশ থেকে উন্নতমানের পাট আমদানি করে, যেটা তাদের দেশে হয় না। আমাদের পাট উদ্বৃত্ত থাকে বলেই আমরা রফতানি করি। কিন্তু এই বছরেই আমরা ব্যাতিক্রম দেখতে পাচ্ছি। আমরা আশঙ্কা করছি, জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারির পরে যদি এভাবেই চলতে থাকে, তাহলে আমাদের জুটমিলগুলো বন্ধ করে দিতে হবে। সরকারই জুটমিল ইতোমধ্যে বন্ধ করেছে। আমাদের বলা হয়েছিল দাম কমালে দেশের ক্ষতি হবে। এবার দেখা গেছে উল্টো হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘মিল বন্ধ হয়ে গেলে আগামী মৌসুমে পাট আসলেও আমরা তা হুট করে চালু করতে পারবো না। আমাদের মিল চালু করতে পাঁচ-ছয় মাস লাগবে। তখন কিন্তু পাটের চাহিদা অনেক কমে যাবে। আমরা হয়তো মনে করছি, কৃষক লাভবান হচ্ছে কিন্তু হয়তো আগামী বছর গিয়ে দেখা যাবে কৃষকরা অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন।’

মুন্নী সাহার সঞ্চালনায় বৈঠকিতে আরও অংশ নিয়েছেন– বাংলাদেশ জুট স্পিনার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান মো. জাহিদ মিয়া, গাজী টেলিভিশনের এডিটর ইন চিফ সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা এবং বাংলা ট্রিবিউন সম্পাদক জুলফিকার রাসেল। 

এ বৈঠকি সরাসরি সম্প্রচার করেছে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন নিউজ।

     

 

/এসও/এমএএ/

লাইভ

টপ
X