X
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
১১ আশ্বিন ১৪২৯

এমসি কলেজে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: ট্রাইব্যুনালে বিচারের নির্দেশনা চেয়ে রিট

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০১ আগস্ট ২০২২, ১২:৪৪আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২২, ১২:৪৪

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে আলোচিত সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলার বিচার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। 

সোমবার (১ আগস্ট) বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এ রিট দায়ের করা হয়। 

বাদীপক্ষের আইনজীবী এম. আব্দুল কাইয়ুম লিটন এ রিট দায়ের করেন। তিনি জানান, গত বছরের (২০২১) জানুয়ারি মাসে ধর্ষণ মামলায় এবং চলতি বছরের মে মাসে চাঁদাবাজির মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়। কিন্তু এ পর্যন্ত সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়নি। এ কারণে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বিচার চেয়ে মামলার বাদী ভুক্তভোগী তরুণীর স্বামী এ রিট করার অনুমতি নিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় স্বামীর সঙ্গে এমসি কলেজে বেড়াতে আসেন এক তরুণী। এসময় ক্যাম্পাস থেকে কয়েকজন ছাত্র ওই তরুণীকে স্বামীসহ কলেজ ছাত্রাবাসে তুলে নিয়ে যায়। পরে তারা স্বামীকে বেঁধে মারধর করে গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে। সেদিন রাতেই ভুক্তভোগীর স্বামী বাদী হয়ে শাহপরাণ থানায় মামলা করেন। মামলায় এজাহার নামীয় আসামি করা হয়েছে ৬ জনকে। সেই সঙ্গে অজ্ঞাতনামা আরও দুই থেকে তিন জনকে আসামি করা হয়।

আসামিরা হলো− এম. সাইফুর রহমান, শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, তারেক আহমদ, অর্জুন লঙ্কর, রবিউল ইসলাম ও মাহফুজুর রহমান। এরা সবাই ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। আসামিদের মধ্যে তারেক ও রবিউল বহিরাগত, বাকিরা এমসি কলেজের ছাত্র। এরই মধ্যে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সকল আসামিকে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মামলায় আট জনকে অভিযুক্ত করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। ২০২১ সালের ১৭ জনুয়ারি এ মামলায় অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন সিলেটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মোহিতুল হক চৌধুরী।

অভিযোগপত্রে আসামিরা হলো- সাইফুর রহমান, শাহ মাহবুবুর রহমান ওরফে রনি, তারেকুল ইসলাম ওরফে তারেক, অর্জুন লস্কর, আইনুদ্দিন ওরফে আইনুল ও মিসবাউল ইসলাম ওরফে রাজন, রবিউল ইসলাম ও মাহফুজুর রহমান ওরফে মাসুম। 

এছাড়াও এ ঘটনায় চাঁদাবাজির অভিযোগে দায়রা আদালতে পৃথক চার্জশিট দেওয়া হয়। পরে বাদীপক্ষ হাইকোর্টে আসলে দুটি মামলা এক আদালতে চলবে বলে আদেশ দেন হাইকোর্ট। এরপর চলতি বছরের ১১ মে ছিনতাই ও চাঁদাবাজির ঘটনায় অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন আদালত।

/বিআই/ইউএস/
সম্পর্কিত
স্ত্রীকে হত্যার ১৩ বছর পর স্বামীর মৃত্যুদণ্ড
স্ত্রীকে হত্যার ১৩ বছর পর স্বামীর মৃত্যুদণ্ড
স্বতন্ত্র প্রার্থী টিটুর মনোনয়নপত্র আপিল বিভাগেও বৈধ ঘোষণা
নোয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনস্বতন্ত্র প্রার্থী টিটুর মনোনয়নপত্র আপিল বিভাগেও বৈধ ঘোষণা
মাকে নিয়ে খুলনা ছাড়লেন মরিয়ম 
মাকে নিয়ে খুলনা ছাড়লেন মরিয়ম 
সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ৯২ বার পেছালো
সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ৯২ বার পেছালো
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
আদিতির হত্যাকারীর বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ
আদিতির হত্যাকারীর বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ
কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পিবিআই’র চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার
কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পিবিআই’র চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার
শিল্পকলায় নাট্যকেন্দ্রের ১৫তম প্রযোজনা
শিল্পকলায় নাট্যকেন্দ্রের ১৫তম প্রযোজনা
সীতাকুণ্ডের অগ্নিদগ্ধরা এখনও বয়ে বেড়াচ্ছে ক্ষত
সীতাকুণ্ডের অগ্নিদগ্ধরা এখনও বয়ে বেড়াচ্ছে ক্ষত
এ বিভাগের সর্বশেষ
স্বতন্ত্র প্রার্থী টিটুর মনোনয়নপত্র আপিল বিভাগেও বৈধ ঘোষণা
নোয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনস্বতন্ত্র প্রার্থী টিটুর মনোনয়নপত্র আপিল বিভাগেও বৈধ ঘোষণা
সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ৯২ বার পেছালো
সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ৯২ বার পেছালো
জি কে শামীম হাসপাতাল থেকে আবার কারাগারে
জি কে শামীম হাসপাতাল থেকে আবার কারাগারে
দণ্ডিতদের জামিনে অপরাধের গভীরতা বিবেচনা করতে হবে: আপিল বিভাগ
দণ্ডিতদের জামিনে অপরাধের গভীরতা বিবেচনা করতে হবে: আপিল বিভাগ
প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করবেন বিচারপতি নূরুজ্জামান
প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করবেন বিচারপতি নূরুজ্জামান