X
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

কমলাপুরে আবারও ফিরেছে শৃঙ্খলা

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২১ এপ্রিল ২০২৩, ১৩:২৮আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২৩, ১৪:৩০

রেলে ঈদ যাত্রার প্রথম তিন দিন কোনও ধরনের ঝামেলা ছাড়া স্বস্তিতেই বাড়ি ফিরছিলেন যাত্রীরা। তবে চতুর্থদিন বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) টিকিটবিহীন যাত্রীর সংখ্যা বেড়ে যায় অনেক। ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হয় রেলওয়ের কর্মীদের। পরে টিকিটবিহীন যাত্রীরা সব বাধা ভেঙে রাতের দিকে স্টেশনে প্রবেশ করে উত্তরবঙ্গগামী দুই ট্রেনের বগির ভেতর ও ছাদে চড়ে বসেন। তবে শুক্রবার (২১ এপ্রিল) সকালে আবার শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে কমলাপুরে। ঈদযাত্রার পঞ্চমদিনে স্টেশনে ছিল না বাড়তি যাত্রীদের ভিড়। টিকিট দেখিয়েই ভেতরে প্রবেশ করতে হচ্ছিলো যাত্রীদের।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ঘুরে দেখা যায়, তিন স্তরের টিকিট পরীক্ষা শেষে সুশৃঙ্খলভাবে প্ল্যাটফর্মে প্রবেশ করছেন যাত্রীরা। এছাড়া ২৫ শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকিট অনেক যাত্রী দাঁড়িয়ে গেলেও ছিল না ট্রেনের বগির ভেতর কোনও চাপ। ফলে নিজ আসনে বসে নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরতে পারছেন আগাম টিকিট কাটা যাত্রীরা।

আগে থেকে টিকিট করে রাখা যাত্রীদের কোনও দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে না

স্বস্তি প্রকাশ করে খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেসের যাত্রী মহাদেব বলেন, গতকাল সন্ধ্যায় যে অবস্থা দেখেছিলাম, চিন্তায় ছিলাম ঠিকমতো নিজের সিটে বসে বাড়ি ফিরতে পারবো কিনা। কিন্তু সকালে স্টেশনে এসে দেখি ভিন্ন চিত্র। কোনও ধরনের ঝামেলা ছাড়াই স্টেশনে প্রবেশ করেছি। আশা করা যায় সুন্দর মতোই বাড়ি পৌঁছাতে পারবো।

স্ট্যান্ডিং টিকিট কাটা ব্রাহ্মণবাড়িয়াগামী তিতাস কমিউটারের যাত্রী রুকন আলি বলেন, আগে টিকিট কাটি নাই৷ স্টেশন থেকেই টিকিট নিছি। টিকিট নিতে কোনও ঝামেলা হয় নাই। আজ লোকও কম। আশা করতাছি কষ্ট ছাড়াই বাড়ি যাইতে পারমু।

এদিকে সকাল থেকে প্রায় সবগুলো ট্রেনই কিছুটা বিলম্বে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে।

টিকিট দেখিয়ে স্টেশনে ঢুকতে হচ্ছে যাত্রীদের

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার বলেন, গতকাল কেবল উত্তরবঙ্গের দুটি ট্রেনের ক্ষেত্রে বিশৃঙ্খলা ছিল। তাছাড়া এবার ট্রেনের অনলাইনে অগ্রীম শতভাগ টিকিট বিক্রি করায়  ১৭ এপ্রিল ঈদযাত্রার শুরুর প্রথম দিন থেকেই যাত্রীরা স্বস্তির বাড়ি ফিরছেন।

তিনি বলেন, এবছর শিডিউল বিপর্যয় ছাড়াই সবগুলো ট্রেনগুলো ছেড়ে গেছে। আর যেন কোনও ধরনের বিশৃঙ্খলা না হয়, সেজন্য রেলওয়ের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

ছবি: নাসিরুল ইসলাম ও জুবায়ের আহমেদ।

/জেডএ/এফএস/
সম্পর্কিত
প্রিয় লেখকের অটোগ্রাফ, সঙ্গে ফটোগ্রাফ
শবে বরাতে শান্তি সমৃদ্ধি কামনা করে মসজিদে মসজিদে দোয়া
বমি করার প্রশিক্ষণ দিয়ে নামানো হয় ছিনতাইকারী!
সর্বশেষ খবর
দুই বছরের দণ্ড, সাজাভোগের ৫৪ দিনের মাথায় কারাগারে আসামির মৃত্যু
দুই বছরের দণ্ড, সাজাভোগের ৫৪ দিনের মাথায় কারাগারে আসামির মৃত্যু
দাগি অপরাধী ও রোহিঙ্গাদের এনআইডি-পাসপোর্ট বানিয়ে দিতো তারা: ডিবি
দাগি অপরাধী ও রোহিঙ্গাদের এনআইডি-পাসপোর্ট বানিয়ে দিতো তারা: ডিবি
ভাষা আন্দোলনের রূপকারকে জানা যাবে ‘অবিনশ্বর’-এ
ভাষা আন্দোলনের রূপকারকে জানা যাবে ‘অবিনশ্বর’-এ
গাজীপুরে ডেকে নিয়ে তরুণকে হত্যা
গাজীপুরে ডেকে নিয়ে তরুণকে হত্যা
সর্বাধিক পঠিত
১০ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত
১০ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত
আইন অনুযায়ী ট্রান্সকমের মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চায় পুলিশ
সম্পত্তি নিয়ে বিরোধআইন অনুযায়ী ট্রান্সকমের মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চায় পুলিশ
গণিত পরীক্ষায় নিজ স্কুলের শিক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ করায় শিক্ষক গ্রেফতার
গণিত পরীক্ষায় নিজ স্কুলের শিক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ করায় শিক্ষক গ্রেফতার
চট্টগ্রাম বন্দরে প্রথমবারের মতো বিদেশি তত্ত্বাবধানে চালু হচ্ছে নতুন টার্মিনাল
চট্টগ্রাম বন্দরে প্রথমবারের মতো বিদেশি তত্ত্বাবধানে চালু হচ্ছে নতুন টার্মিনাল
টাউট কারা
টাউট কারা