X
বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪
৩ বৈশাখ ১৪৩১

হত্যাকাণ্ডের পেছনের শক্তি কারা জানতে চাই: নিহত লুৎফরের মেয়ে

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৫৪আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৫৬

পিলখানা হত্যাকাণ্ডে নিহত লে. কর্নেল লুৎফর রহমানের মেয়ে ফাবিয়া বুরশা বলেছেন, ‘পিলখানার ঘটনায় জড়িত অনেককে গ্রেফতার করা হলেও বিচারের রায় এখনও কার্যকর করা হয়নি। এখন পর্যন্ত কারও ফাঁসি হয়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এত বড় একটি হত্যাকাণ্ড ঘটানোর পেছনে অনেক শক্তি থাকার কথা। সেই শক্তিগুলোর নাম এখনও সামনে আসেনি কেন?’

রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বনানীর সামরিক কবরস্থানে পিলখানা হত্যাকাণ্ডে নিহত বাবার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

ফারিয়া বুরশা বলেন, ‘যারা মাঠে বসে গুলি চালিয়েছে, তারা কারও মদদপুষ্ট হয়ে এই কাজ করেছে। আমরা জানতে চাই তারা কারা। আমরা জানি না আমাদের জীবদ্দশায় এটা জানতে পারবো কি না। আমাদের জীবদ্দশায় এই বিচার দেখে যেতে চাই এবং হত্যাকাণ্ডের পেছনের শক্তি কারা তা-ও আমরা জানতে চাই।’

গোয়েন্দা ব্যর্থতা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘আমরা মনে করি পিলখানা হত্যাকাণ্ডের পেছনে গোয়েন্দা ব্যর্থতাও রয়েছে। কারণ এই হত্যাকাণ্ড অনেক দিনের পরিকল্পনার পর ঘটানো হয়েছে। তবে দুঃখের বিষয় হলো ১৫ বছর পরেও আমরা ঘটনার পেছনে কারা ছিল, তা জানতে পারিনি। আমরা আশা করি প্রকৃত সত্য একদিন অবশ্যই বের হয়ে আসবে।’

১৫ বছর আগে ২০০৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি বিডিআরের (বর্তমানে বিজিবি) সদর দফতর পিলখানাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘটে যায় দেশের ইতিহাসের মর্মান্তিক ও নৃশংস এক ঘটনা। বিপথগামী কিছু সদস্যের নির্মম হত্যাযজ্ঞের শিকার হন বিডিআরের তৎকালীন মহাপরিচালক মেজর জেনারেল শাকিল আহমেদসহ ৫৭ সেনা কর্মকর্তা।

দুদিন ধরে (২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি) চলা নিষ্ঠুর আচরণ ও পাশবিক নির্যাতনের শিকার হন তৎকালীন বিডিআরের বিভিন্ন পর্যায়ে দায়িত্ব পালনরত সেনা কর্মকর্তারা। তাদের বাসায় গিয়ে পরিবারের সদস্যদের আটক ও নির্যাতন করা হয়। এ সময় নারী ও শিশুসহ আরও ১৭ জনকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

আরও পড়ুন:

পিলখানা হত্যাকাণ্ডের বিচার দ্রুত শেষ হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পিলখানা হত্যাকাণ্ডে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন

পিলখানা ট্র্যাজেডি আজ: বিস্ফোরক মামলা নিম্ন আদালতেই ১৫ বছর

/কেএইচ/এনএআর/
সম্পর্কিত
হত্যা মামলায় ট্রান্সকম গ্রুপের দুই কর্মকর্তার জামিন
আদালত থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশে যা বললেন ড. ইউনূস
কোরআন পোড়ানোর অভিযোগে যুবক গ্রেফতার
সর্বশেষ খবর
অ্যাটলেটিকোকে বিদায় করে ১১ বছর পর সেমিফাইনালে ডর্টমুন্ড
চ্যাম্পিয়নস লিগঅ্যাটলেটিকোকে বিদায় করে ১১ বছর পর সেমিফাইনালে ডর্টমুন্ড
অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তনে বার্সাকে কাঁদিয়ে সেমিফাইনালে পিএসজি
চ্যাম্পিয়নস লিগঅবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তনে বার্সাকে কাঁদিয়ে সেমিফাইনালে পিএসজি
গাজীপুরে ব্যাটারি কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণে চীনা প্রকৌশলীর মৃত্যু, অগ্নিদগ্ধ ৬
গাজীপুরে ব্যাটারি কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণে চীনা প্রকৌশলীর মৃত্যু, অগ্নিদগ্ধ ৬
নারিনকে ছাপিয়ে বাটলার ঝড়ে রাজস্থানের অবিশ্বাস্য জয়
নারিনকে ছাপিয়ে বাটলার ঝড়ে রাজস্থানের অবিশ্বাস্য জয়
সর্বাধিক পঠিত
ঘরে বসে আয়ের প্রলোভন: সবাই সব জেনেও ‘চুপ’
ঘরে বসে আয়ের প্রলোভন: সবাই সব জেনেও ‘চুপ’
উৎসব থমকে যাচ্ছে ‘রূপান্তর’ বিতর্কে, কিন্তু কেন
উৎসব থমকে যাচ্ছে ‘রূপান্তর’ বিতর্কে, কিন্তু কেন
ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো ১৩ জনের
ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো ১৩ জনের
চুরি ও ভেজাল প্রতিরোধে ট্যাংক লরিতে নতুন ব্যবস্থা আসছে
চুরি ও ভেজাল প্রতিরোধে ট্যাংক লরিতে নতুন ব্যবস্থা আসছে
প্রকৃতির লীলাভূমি সিলেটে পর্যটকদের ভিড়
প্রকৃতির লীলাভূমি সিলেটে পর্যটকদের ভিড়