পল্টনের পর খামারবাড়িতে বোমাসদৃশ বস্তু নিষ্ক্রিয় করলো পুলিশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৪:৪১, জুলাই ২৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৫, জুলাই ২৪, ২০১৯

খামারবাড়িতে বোমাসদৃশ্য বস্তু নিষ্ক্রিয় করছেন পুলিশের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটরাজধানীর পল্টনের পর খামারবাড়িতে আরও একটি বোমাসদৃশ বস্তু নিষ্ক্রিয় করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট। মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে খামারবাড়ি ট্রাফিক পুলিশ বক্স সংলগ্ন এলাকায় ফেলে রাখা বোমাসদৃশ বস্তুটি নিষ্ক্রিয় করা হয়। এর আগে রাত ১১টার দিকে পল্টন মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে থেকে আরেকটি বোমাসদৃশ বস্তু উদ্ধার করে তা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিষ্ক্রিয় করে পুলিশ।
পৃথক দুটি জায়গায় নিষ্ক্রিয় করা বস্তু দু’টিকে পুলিশ প্রাথমিকভাবে বোমা না বললেও বিস্ফোরণ ঘটানোর সময় বিকট শব্দ হয়েছে এবং অনেক দূর পর্যন্ত স্প্লিন্টার ছুটে গেছে বলে জানিয়েছেন একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী।
ডিএমপির উপপুলিশ কমিশনার (স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপ) প্রলয় কুমার জোয়ারদার বলেন, ‘বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পল্টনে ও খামারবাড়িতে বোমাসদৃশ বস্তু দু’টিকে নিষ্ক্রিয় করা হয়। আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। সেগুলো ল্যাবে পাঠানোর পর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে কী ছিল তা জানা যাবে।’
তিনি বলেন, ‘জনমনে আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য এ কাজ কেউ করতে পারে। তদন্ত করে বিস্তারিত বলা যাবে।’
রাত ৯টার দিকে খামারবাড়ি মোড়ে ট্রাফিক বক্স সংলগ্ন সড়ক দ্বীপে বোমার মতো একটি বস্তু দেখতে পেয়ে জায়গাটি ঘিরে নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান করে পুলিশ। ডিএমপির বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এসে রাত ৩টার দিকে বিস্ফোরণের মাধ্যমে তা নিষ্ক্রিয় করে। একইভাবে রাত ১১টার দিকে পল্টন মোড়ে পুলিশ বক্সের সামনে থেকে আরেকটি বোমাসদৃশ বস্তু উদ্ধার করা হয়।
শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বলেন, রাত ১১টার দিকে পল্টন মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে একটি কার্টন দেখতে পান পুলিশ সদস্যরা। কার্টনের ভেতর বোমা জাতীয় কিছু আছে সন্দেহে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলকে ডাকা হয়। পরে তারা গিয়ে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে তা নিষ্ক্রিয় করে।

আরও পড়ুন: খামারবাড়িতে ‘বোমাসদৃশ বস্তু’, ঘটনাস্থলে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট

/আরজে/ওআর/এমএমজে/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ