স্বপ্ন আউটলেটে পালসের চার দিনব্যাপী স্বাস্থ্যসেবা শুরু

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৩:৩৬, নভেম্বর ১৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৪৬, নভেম্বর ১৩, ২০১৯

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে সুপার শপ স্বপ্ন’র গুলশান-১ আউটলেটে পালসের আয়োজনে চার দিনব্যাপী স্বাস্থ্যসেবার উদ্বোধন করেন অধ্যাপক এ কে আজাদ খান।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে সুপার শপ স্বপ্ন ও বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশনের সহযোগিতায় ডায়াবেটিস বিষয়ক যত্ন ও প্রতিকার নিয়ে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে পালস হেলথকেয়ার সার্ভিস। বুধবার (১৩ নভেম্বর) গুলশান-১ এর স্বপ্ন আউটলেটে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন হয়। চার দিনব্যাপী এই আয়োজন চলবে ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট এ কে আজাদ খান, পালস হেলথকেয়ার সার্ভিসের প্রেসিডেন্ট রুবাবা দৌলা ও এসিআই লজিস্টিক লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক সাব্বির হাসান নাসির।

অনুষ্ঠানে পালস হেলথকেয়ার সার্ভিসের পক্ষে রুবাবা দৌলা বলেন, ‘বাংলাদেশে যারা ডায়াবেটিসসহ এমন অন্যান্য রোগে আক্রান্ত তারা সবসময় পর্যাপ্ত স্বাস্থ্যসেবা পান না। আমরা আশা করছি স্বপ্ন’র এই আয়োজনে ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে সবাই সচেতন হবে এবং টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে চিকিৎসার অসংখ্য সুযোগ তৈরি হবে।

অধ্যাপক এ কে আজাদ খান বলেন, বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন অনলাইনে এই স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে যুক্ত থাকতে পেরে গর্বিত। এটা মাত্র শুরু, আমরা বিশ্বাস করি ভবিষ্যতে সারাদেশে পুরোপুরি ডিজিটাল প্রক্রিয়ায় স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা যাবে।

১৩ নভেম্বর থেকে ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত মিরপুর ১১, উত্তরা-৩ নম্বর সেক্টর, গুলশান-১ ও সিলেটের আম্বরখানায় অবস্থিত স্বপ্ন আউটলেটে সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে এই কার্যক্রম। এসময় ক্রেতারা পালস হেলথকেয়ার প্ল্যাটফর্মে বিনামূল্যে নিবন্ধনের পাশাপাশি রক্তে গ্লুকোজ, রক্তচাপ ও বিএমআই পরীক্ষা করতে পারবে। এছাড়া বিনামূল্যে চিকিৎসকের পরামর্শ পাওয়া যাবে এবং সপ্তাহে সাতদিনই ফোনের মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা নেওয়ার বিশেষ সুবিধাও পাবেন তারা।

পালস হেলথকেয়ার সার্ভিসে কল সেন্টারের মাধ্যমে সবাইকে সরাসরি স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতের চেষ্টা করা হয়। তাদের সঙ্গে কাজ করে ইব্রাহিম হেলথলাইনও। এই সেবার আওতায় রয়েছে অনলাইনে অ্যাপয়েনমেন্ট নেওয়া, ভিডিওর মাধ্যমে পরামর্শ দেওয়া, অনলাইনে মেডিক্যাল নথি সংরক্ষণ ও আদান প্রদান। 

এই প্ল্যাটফর্মে বিনামূল্যে নিবন্ধন করা যায়। শুধুমাত্র চিকিৎসকের সেবা নেওয়ার ক্ষেত্রে একটি ফি রয়েছে।  পালস ১২ মাসের সদস্য সেবা দিচ্ছে মাত্র ৪৯৯ টাকায়। এই সদস্যপদের মাধ্যমে গ্রাহক সপ্তাহে সাতদিন যেকোনও সময় কল সেন্টার সুবিধা পাবেন। সেখানে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারবেন গ্রাহকরা। নিবন্ধনের জন্য  প্লে স্টোর কিংবা অ্যাপসস্টোর থেকে পালস হেলথকেয়ার সার্ভিস অ্যাপটি নামিয়ে নিতে পারবেন গ্রাহকরা। কিংবা  www.mypulse.com.bd ওয়েবসাইটেও নিবন্ধন প্রক্রিয়ার বিস্তারিত জানা যাবে।

 

 

/এমএইচ /টিএন/

লাইভ

টপ