গণরুমে শিক্ষার্থী নির্যাতনের প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বাধার অভিযোগ

Send
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২১:৫০, নভেম্বর ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৫১, নভেম্বর ১৯, ২০১৯

ঢাবিতে কর্মসূচিঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) হলগুলোতে ‘গণরুম-গেস্টরুমে’ সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের চালানো নির্যাতন এবং নিপীড়নের চিত্র তুলে ধরে চার দিনব্যাপী প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

আয়োজকদের অভিযোগ মঙ্গলবার (১৯নভেম্বর) কলাভবনের ডিন অফিসের সামনে ‘বৈধ সিট আমার অধিকার’ কর্মসূচি চলাকালে ছাত্রলীগ মনোনীত প্যানেল থেকে নির্বাচিত ডাকসুর সদস্য তানভীর হাসান সৈকত তাতে বাধা দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থী ও বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের সহায়তায় চার দিনব্যাপী এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

আয়োজক ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ফেডারেশনের অর্থ সম্পাদক আরমানুল হকের অভিযোগ, ‘দুপুর দেড়টার দিকে কর্মসূচিস্থলে আসেন তানভীর হাসান সৈকত। প্রদশর্নীতে শুধু ছাত্রলীগ দ্বারা শিক্ষার্থী নিপীড়নের চিত্র কেন তুলা ধরা হলো এর জবাবদিহিতা চান তিনি। এ সময় সৈকত প্রদর্শনী বন্ধে আরমান এবং উমামা ফাতেমাকে হুমকি দেন।’

 তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তানভীর হাসান সৈকত। তার দাবি, ‘প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা ডিন অফিসে ভাইভা দিতে এসেছিল। এসময় তাদের সঙ্গে অভিভাবকরাও ছিল। কিন্তু প্রদর্শনীতে ছাত্রলীগ সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ভীতি সঞ্চার করার পাঁয়তারা চালাচ্ছিল আয়োজকরা। আমি শুধু বলেছি যে, ছাত্রলীগের সমালোচনা করতে হলে ভালো-খারাপ দুই-ই তুলে ধরতে হবে। কিন্তু তারা শুধু নেতিবাচক দিক তুলে ধরে ছাত্রলীগকে বিতর্কিত করছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি ছাত্রলীগের পদে না থাকলেও ছাত্রলীগ মনোনীত প্যানেল থেকে নির্বাচিত হয়েছি। তাই এই সংগঠনের প্রতি আমার ভালোবাসা আছে।’

 

/এসআইআর/টিটি/

লাইভ

টপ