প্রতি শুক্রবার গাড়িমুক্ত থাকবে উত্তরার সোনারগাঁ জনপদ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১২:৫২, নভেম্বর ২২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:১৪, নভেম্বর ২২, ২০১৯

রাজধানীর মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ের পর এবার উত্তরার সোনারগাঁ জনপদ সড়কের একপাশকে কার ফ্রি স্ট্রিট (গাড়িমুক্ত সড়ক) করার উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। এ জন্য আজ শুক্রবার (২২ নভেম্বর) সকাল থেকে এ সড়কে কোনও গাড়ি চলছে না। বরং সড়কটিতে শিশুরা খেলাধুলায় মেতেছে।

শুক্রবার ওই সড়কে গাড়িমুক্ত কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম।  তিনি জানান, প্রতি শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত উত্তরা সেক্টর ১১ এর ২/এ নম্বর সড়ক থেকে চৌরাস্তা পর্যন্ত গাড়িমুক্ত থাকবে। 

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ‘আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য আমাদের মাঠগুলোকে পুনরুদ্ধার করবো। আজকের এই আয়োজন শিশুদের জন্য। যারা নিজেদের ব্যবসার জন্য মাঠ দখল করেছেন তারা শুধু আমি আমি চিন্তা করছেন। তাদেরকে আমি বলতে চাই, শুধু আমি আমি চিন্তা করবেন না। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য চিন্তা করতে হবে।’  আতিকুল ইসলাম আরও বলেন, ‘আজকে আমরা দেখেছি, দখলদাররা মাঠের চতুর্দিকে বালু ফেলছেন এবং দখল করছেন।  এভাবে আস্তে আস্তে পুরো মাঠ গ্রাস করছেন,খাল গ্রাস করছেন।  তারা গ্রাস করছেন পুরো নগর জীবনকে। আসুন, আমরা সবাই একযোগে তাদেরকে প্রতিহত করি।’

মেয়র বলেন, ‘আজ  আমাদের বাচ্চাদের ২৫ ভাগ ডিপ্রেশনে ভোগে। তারা ডিপ্রেশনের ওষুধ খাচ্ছে। তাদেরকে কাউন্সেলিংয়ে নেওয়া হচ্ছে। এর অন্যতম কারণ, তাদের খেলার মাঠ নেই। খেলার জন্য কোনও জায়গা তাদের দেওয়া হয়নি।’

 

তিনি আরও  বলেন, ‘আজ  আমাদের শিশুরা প্রতিদিন দুই ঘণ্টা করে মোবাইল ফোনে ভিডিও দেখে। আমাদের বাচ্চাদের খাওয়ানোর সময় এখন ভিডিও দেখিয়ে খাওয়াতে হয়। অথচ আমরা এক সময় খেলেছি, খেলার কারণে পেটে ক্ষুধা লেগেছে এবং খেয়েছি। এসব বিষয়ে আমাদেরকে পরিবর্তন আনতে হবে।  এই পরিবর্তন আনার জন্যই আজকে এই উদ্যোগ নিয়েছি। এজন্য প্রতি শুক্রবার তিন থেকে চার ঘণ্টা এই এলাকার মানুষের কিছুটা কষ্ট হবে। এই কষ্টের কারণে আমাদের বাচ্চাগুলো যদি একটু মানসিক স্বস্তি পায়, এটা আমাদের জন্য বড় উপকার হবে।  আমাদের টার্গেট বাচ্চাদেরকে মাদকাসক্ত থেকে দূরে রাখা। এই সমাজকে জঙ্গিমুক্ত রাখা।’

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রতি শুক্রবার সকালে এই সড়কে স্থানীয়রা স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণে ওয়াকিং, সাইক্লিং, স্কেটিং, ঘুড়ি ওড়ানো, গান, ছবি আঁকা, আড্ডা, বই পড়া সহ বিভিন্ন ধরনের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে পারবেন।

শিশুদের মাঝে মেয়র আতিকুল ইসলাম

উত্তর পরশমনি ল্যাবরেটরি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী সায়মন এসেছে বাবা-মায়ের সঙ্গে। অন্য শিশুদের সঙ্গে সে ব্যস্ত ছিল সড়কে ফুটবল খেলতে। তার বাবা একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ‘ঢাকা শহরে শিশুরা সব সময় চার দেয়ালের মাঝে বন্দি থাকে। উন্মুক্ত পরিবেশে খেলাধুলার কোনও সুযোগ পায় না। শুক্রবার একদিন হলেও এমন উন্মুক্ত পরিবেশে শিশু কিশোরদের খেলাধুলার সুযোগ করে দিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। এই একদিন সকাল ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত এই সড়কে কোনও গাড়ি চলবে না। আসলেই উদ্যোগটা প্রশংসনীয়।’

এসময় মেয়র আতিকুল ইসলামও গাড়িমুক্ত সড়কে ঘুরে ঘুরে শিশুদের সঙ্গে বিভিন্ন খেলায় অংশ নেন।

/এসএস/এপিএইচ/

লাইভ

টপ