নোট ও গাইড পড়ানো বন্ধের নির্দেশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:১৮, জানুয়ারি ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৩৬, জানুয়ারি ২১, ২০২০




বিভিন্ন শ্রেণির নোট ও গাইড বই (ফাইল ছবি)শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে নির্ধারিত কারিকুলামের বাইরে নোট ও গাইড বই পড়ানো বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক স্বাক্ষরিত এক আদেশে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

অভিযোগ রয়েছে, দেশের বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান কারিকুলামের বাইরে থাকা নোট ও গাইড বই শিক্ষার্থীদের কিনতে বাধ্য করছে। কোন নোট ও গাইড বই কিনতে হবে তাও নির্ধারণ করে দেওয়া ও শিক্ষার্থীদের পড়তে বাধ্য করার অভিযোগ উঠেছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগও জমা পড়েছে। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মহাপরিচলক সৈয়দ গোলাম মো. ফারুক নোট ও অতিরিক্ত বই না কেনে এবং শিক্ষার্থীদের না পড়ানোর জন্য নির্দেশনা জারি করেন।

 আদেশে বলা হয়, দেশব্যাপী সরকারি ও বেসরকারি স্কুল এবং কলেজের বিভিন্ন স্তরে শিক্ষার্থী ভর্তি, সেশন ফি, ফরম পূরণে সরকার নির্ধারিত ফি’র অতিরিক্ত আদায় করা হচ্ছে। স্কুল ও কলেজ বিভিন্ন খাতে এ অতিরিক্ত অর্থ আদায় করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

এছাড়া নির্দিষ্ট কারিকুলামের বাইরে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত বই কেনা বা নোট বই পড়তে ও কিনতে বাধ্য করার অভিযোগ পাওয়া গেছে, যা বিধি পরিপন্থী ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এ অবস্থায় বিধিবহির্ভূত এসব কার্যক্রম বন্ধে আঞ্চলিক কর্মকর্তা, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা শিক্ষা অফিসারদের পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেওয়া হলো।

এছাড়া সমন্বিত পরিকল্পনার আওতায় বার্ষিক পরিদর্শন ক্যালেন্ডার অনুযায়ী সঠিকভাবে মনিটরিং করা হচ্ছে কিনা সে বিষয়েও তদারকির নির্দেশ দেওয়া হয় ওই আদেশে।

 

/এসএমএ/টিটি/

লাইভ

টপ