আনিস ভাইয়ের মৃত্যুর সঙ্গে সব প্রজেক্ট মরে গিয়েছিল : আতিকুল

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৩:২০, জানুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৩৫, জানুয়ারি ২২, ২০২০

‘শহর নিয়ে ব্যবসায়ীদের প্রত্যাশা’ শীর্ষক সভায় আতিকুল ইসলাম

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর পর তার সব প্রকল্প মরে গিয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন সিটি নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, এগুলো টেনে তোলা খুব কষ্টসাধ্য ছিল। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) রাতে রাজধানীর রাওয়া কনভেনশন হলে  ‘শহর নিয়ে ব্যবসায়ীদের প্রত্যাশা’ শীর্ষক সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভা আয়োজন করেন পোশাক ও বস্ত্র শিল্পের ব্যবসায়ীরা।

আতিকুল ইসলাম বলেন, আনিস ভাই মারা যাওয়ার পর তার প্রত্যেকটি প্রজেক্ট মরে গিয়েছিল। এগুলা টেনে তোলা কিন্তু খুব কষ্টসাধ্য ছিল। কারণ সরকারি ফাইলে যদি তারিখ উত্তীর্ণ হয়ে যায়, সেই ফাইলটি টেনে বের করা কিন্তু খুব কঠিন। আনিস ভাইয়ের প্ল্যান ছিল ১৩টি ইউ লুপ করবেন। ইউ লুপের ফাইলই নাই।

তিনি বলেন, ৫৪টি পাবলিক টয়লেটের প্ল্যান করে গিয়েছিলেন প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক। ওই ফাইলটি ডেড। ইউ লুপের ফাইলটিও ডেড। ৪২ হাজার এলইডি লাইটের ফাইলও ডেড। কোনও কিছু ছিল না। আপনারা জানলে খুশি হবেন প্রত্যেকটি ডেড ফাইল ছয় মাসের মধ্যে দৃশ্যমান হবে।

আনিসুল হক অলরাউন্ডার ছিলেন উল্লেখ করে আতিক বলেন, তিনি একাধারে ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, উপস্থাপক, সফল ব্যবসায়ী, ভালো বাবা, ভালো স্বামী, ভালো বন্ধু এবং সর্বশেষে তিনি একজন ভালো নগর সেবক হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করে গেছেন। এ কারণে তিনি একজন অলরাউন্ডার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের স্ত্রী ও বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক,  বিকেএমইএ'র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হাতেম আলী, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি এ কে আজাদ, মহিউদ্দিন আহমেদ, বিজিএমইএয়ের সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান , ব্যবসায়ী আনিসুর রহমান সিনহা প্রমুখ।

 

/এসও/এমআর/

লাইভ

টপ