শ্রম আইন থেকে অগণতান্ত্রিক ধারা বাতিলের দাবি শ্রমিক ফ্রন্টের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:৪৮, জানুয়ারি ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:৪৯, জানুয়ারি ২৪, ২০২০

শ্রম আইন ও বিধিমালায় শ্রমিকদের স্বার্থবিরোধী ও অগণতান্ত্রিক ধারা বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট। শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এই সমাবেশ করে তারা।

সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি রাজেকুজ্জামান রতন বলেন, ‘ব্যবসায়ী সংখ্যাগরিষ্ঠ সংসদ ২০০৬ সালে কয়েক মিনিটের মধ্যে শ্রমিকদের প্রতিবাদ আন্দোলনের মুখে যে শ্রম আইন পাস করেছিল,  তা দীর্ঘদিন বাস্তবায়ন করতে পারেনি। বর্তমান ক্ষমতাসীন সরকার ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার আগে শ্রমিকদের স্বার্থবিরোধী ধারা সংশোধনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। তারই ধারাবাহিকতায় ২০১৩ সালে শ্রম আইনে আগের কিছু ধারা সংশোধন করা হলেও শ্রমিকদের স্বার্থবিরোধী নতুন কিছু ধারা যুক্ত করা হয়। ২০১৫ সালে নতুন বিধিমালা প্রণয়ন এবং ২০১৮ সালে শ্রম আইনের কিছু ধারা সংশোধন করা হয়। বর্তমানেও বিধিমালা সংশোধনের কাজ চলছে।’

তিনি আরও  বলেন, ‘পূর্বের অভিজ্ঞতায় দেখা যায়, শ্রমিক আন্দোলন বা বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের আলোচনার মুখে সরকার শ্রম আইন সংশোধন করলেও প্রতিটি শ্রমিকের অধিকার নিশ্চিত করার বদলে বিভিন্ন কৌশলে অধিকার সংকুচিত করা হয়েছে। শ্রম আইনের ২৩, ২৬ ও ২৭ ধারার অপব্যবহার করে শ্রমিকদের কর্মচ্যূত ও ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত করার মাধ্যমে তাদের মত প্রকাশের এবং সংগঠিত হওয়ার অধিকার সংকুচিত করা হয়েছে।’

তিনি দাবি জানিয়ে বলেন, ‘শিল্পের বিকাশ নিশ্চিত এবং সামাজিক বৈষম্য নিরসন করতে শ্রম আইন ও বিধিমালার অগণতান্ত্রিক ধারা বাতিল করা হোক।’

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবীব বুলবুল, জাতীয় শ্রমিক জোট বাংলাদেশের সভাপতি সাইফুজ্জামান বাদশা, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আহসান জুয়েল প্রমুখ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

 

/এইচএন/এপিএইচ/

লাইভ

টপ