পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব অযৌক্তিক: টিআইবি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:০১, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:১৯, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০

টিআইবি

আবাসিক ও বাণিজ্যিক গ্রাহক পর্যায়ে গড়ে ৮০ শতাংশ পর্যন্ত পানির মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাব করেছে ঢাকা ওয়াসা। এই প্রস্তাবকে অযৌক্তিক ও ওয়াসার আইনবিরোধী বলে মন্তব্য করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। এই প্রস্তাবকে অগ্রাহ্য করে যৌক্তিক ও সহনীয় মাত্রায় মূল্যবৃদ্ধির আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) টিআইবির পরিচালক (আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন) শেখ মনজুর-ই-আলম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানানো হয়েছে। পাশাপাশি পানির পর্যাপ্ত সরবরাহ ও গুণগত মান নিশ্চিত করার দাবি জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী, ঢাকা ওয়াসা আবাসিক গ্রাহক পর্যায়ে প্রতি ইউনিট পানির দাম ১১.৫৭ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০ টাকা এবং বাণিজ্যিক গ্রাহক পর্যায়ে ৩৭.০৪ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৬৫ টাকা (সার্বিকভাবে ৮০ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি) নির্ধারণের প্রস্তাব করেছে, যা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক ও অগ্রহণযোগ্য। ওয়াসা আইন-১৯৯৬ অনুযায়ী বাৎসরিক সর্বোচ্চ ৫ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যবৃদ্ধির বিধানের সঙ্গে এই প্রস্তাব সাংঘর্ষিক। এতে আরও বলা হয়, প্রস্তাব অনুযায়ী মূল্যবৃদ্ধি তা নগরবাসীর জন্য নির্যাতন ও বিড়ম্বনার কারণ হবে। বিশেষ করে নিম্নআয়ের মানুষের ওপর চাপ আরও বৃদ্ধি করবে। উন্নয়ন ব্যয় বহনের নামে পানির বিশুদ্ধতা নিশ্চিত না করে মূল্যবৃদ্ধির এই প্রস্তাব ঢাকা ওয়াসার স্বেচ্ছাচারিতার বহিঃপ্রকাশ। যে পানি ওয়াসার শীর্ষ কর্মকর্তারা নিজেরাই পান করতে নিরাপদ বোধ করেন না, তার মূল্যবৃদ্ধির এই প্রস্তাব অগ্রাহ্য করে ওয়াসার সুশাসন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।’

ঢাকা ওয়াসা নিয়ে ২০১৯ সালের এপ্রিলে প্রকাশিত টিআইবির গবেষণার তথ্য উল্লেখ করে ইফতেখারুজ্জামান বলেন, গবেষণায় দেখা গেছে ঢাকা ওয়াসার অধীনে জরিপে অংশ নেওয়া ৪৪.৮ শতাংশ সেবাগ্রহীতা চাহিদা অনুযায়ী পানি পান না, ৫১.৫ শতাংশ সেবাগ্রহীতার কাছে সরবরাহকৃত পানি অপরিষ্কার এবং ৪১.৪ শতাংশের কাছে সরবরাহকৃত পানি দুর্গন্ধযুক্ত।

সেবার মান বাড়াতে উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য গৃহীত ঋণ পরিশোধ ও ভর্তুকি মেটাতে অতিরিক্ত অর্থের প্রয়োজনীয়তা স্বীকার করে তিনি আরও বলেন, উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য অর্থপ্রবাহ বাড়ানোর নামে অযৌক্তিকভাবে পানির মূল্যবৃদ্ধির আগে ঢাকা ওয়াসার ক্রয় প্রক্রিয়া, প্রকল্প বাস্তবায়ন এবং গ্রাহক পর্যায়ের মিটার রিডিংসহ নানা ক্ষেত্রে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ করে অভ্যন্তরীণ সুশাসন নিশ্চিত করা জরুরি।

/আরজে/এমআর/

লাইভ

টপ