আমলাদের নেতিবাচক মনোভাব বদলানোর অনুরোধ বিমান সচিবের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:৪৩, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৪৭, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

সিনিয়র সচিব মহিবুল হক। সরকারি কর্মকর্তাদের (আমলা) নেতিবাচক মানসিকতা বদলে ইতিবাচক হওয়ার অনুরোধ  জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মহিবুল হক। তিনি বলেন, ‘আমাদের মধ্যে সব সময় একটা নেগেটিভ অ্যাটিচুয়েট কাজ করে। আমি সরকারি কর্মকর্তাদের বলি, ভাই নিজের অ্যাটিচুয়েট চেঞ্জ করো। মন-মানসিকতা চেঞ্জ করো।’

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর সোনারগাঁ হোটেলে এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। ‘বাংলাদেশের পর্যটন: সুযোগ ও চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক সেমিনারটির আয়োজন করে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়।

সিনিয়র সচিব মহিবুল হক বলেন, ‘আমি নিজেই দেখিছি, ৩২ বছর সরকারি চাকরি করার পরও একটা কাজ আদায় করা, তুলে নেওয়া কি কঠিন। আর টেবিলের ওপাশে যারা আছেন, তাদের জন্য আরও মহা কঠিন। যেটা সহজে অনুমান করা যায়। কোনো মন্ত্রণালয়ে যদি কোনো কাজ থাকে আমার, আমি নিজে যাই। অফিসার আমার সিনিয়র অথবা জুনিয়র হোক, মন্ত্রী মহোদয়ের সঙ্গে কথা বলি। যদি মনে করি আমি কুলায়ে উঠতে পারবো না, তাহলে আমাদের প্রতিমন্ত্রী মহোদয়কে (বিমান প্রতিমন্ত্রী) সঙ্গে নিয়ে যাই। সেখানে ঝগড়া বিবাদ যা করার দরকার আমি করি, আমার কাজ উঠিয়ে নিয়ে আসি। এটা আমার ব্যক্তিগত ইনিশিয়েটিভ।’

সিনিয়র সচিব মহিবুল হক বলেন, ‘সত্যিকার অর্থে পর্যটন এগিয়ে নিতে সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন। এজন্য প্রত্যেক বাংলাদেশিকে দায়িত্ব নিতে হবে। গণমাধ্যমকে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে হবে। এমনভাবে সংবাদ প্রকাশ করতে হবে, যাতে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের নেতিবাচক মনোভাব না জন্মায়। আমাদের দেশে পর্যটকদের জন্য প্রকৃত অর্থে সেরকম কোনো বিনোদনের ব্যবস্থা নেই। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আমরা সেই ব্যাপারে ব্যবস্থা নিয়েছি। কক্সবাজারে পর্যটন করপোরেশনের মোটেলে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চালু করা হবে। পর্যায়ক্রমে বাংলাদেশের প্রতিটি পর্যটন স্পট আকর্ষণে পর্যটকদের উপযুক্ত বিনোদনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এপ্রিল থেকে সরাসরি সিলেট-লন্ডন ফ্লাইট চালু করা হবে। সৈয়দপুর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করতে ৯১২ একর ভূমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। কক্সবাজার বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করতে ডিজাইনার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আগামী ২ বছরের মধ্যে একটা ডিজাইন দেবে। কক্সবাজার বিমানবন্দর ২৪ ঘণ্টা চালু রাখার জন্য এর রানারসহ সার্বিক লাইটিং সিস্টেমের উন্নয়ন করা হচ্ছে। অতি দ্রুত কক্সবাজার থেকে ২৪ ঘণ্টা ফ্লাইট পরিচালনা করা যাবে।’

ট্রাভেল ম্যাগাজিন ‘ভ্রমণ’র সম্পাদক আবু সুফিয়ানের উপস্থাপনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জাবেদ আহমেদ, পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান রাম চন্দ্র দাস, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোকাব্বির হোসেন, ট্যুরিস্ট পুলিশের ডিআইজি মল্লিক ফখরুল ইসলাম, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান মো. সবুর খান ও গ্লোবাল টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নওয়াজিশ আলী খান প্রমুখ।

 

/সিএ/এনআই/

লাইভ

টপ