X
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
২০ মাঘ ১৪২৯
সরেজমিন বিএনপির সমাবেশস্থল

এ যেন রাতের হাট বসেছে গোলাপবাগে

সালমান তারেক শাকিল
১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৪২আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৪২

একদিকে সমন্বিত স্লোগান, অন্যদিকে লাইটের আলোয় মঞ্চ নির্মাণ। রঙিন ব্যানার আর ককশিটে আঁকা ধানের শীষ নিয়ে মিছিল হচ্ছে চারপাশে। মোবাইল ফোনে দৃশ্যবন্দি করতে ব্যস্ত তরুণ-যুবকদের দল। এই দৃশ্য ১০ ডিসেম্বর শনিবার প্রথম প্রহরের; রাজধানীর গোলাপবাগ মাঠ ও মাঠের সামনের সড়কের। মাঠের ভেতর হাজার হাজার লোকের সমাগম। একটু বয়স্করা গা এলিয়ে জিরিয়ে নিচ্ছেন খানিক। মাঠের ভেতরে সমাগতদের উদ্দেশ্যে ভিড় জমিয়েছেন নানা পণ্যের স্বল্পপুঁজির বিক্রেতারা। সবমিলিয়ে বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে রাজধানীর গোলাপবাগে যেন হাট বসেছে।

স্লোগানে মুখর মাঠের উত্তর পাশে ছিল বিশ্বকাপ ফুটবল দেখার আয়োজন শনিবার (১০ ডিসেম্বর) রাত ১টার দিকে গোলাপবাগ মাঠের পশ্চিম পাশে দেখা গেলো মঞ্চ নির্মাণের কাজ। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নবনির্মিত অবকাঠামোর সঙ্গে লাগোয়া এই মঞ্চ নির্মাণ কাজের তদারকি করছিলেন শনিবারের সমাবেশের সভাপতি আমান উল্লাহ আমান। শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) রাত ১২টা ৫০-এর দিকে তার সঙ্গে যোগ দেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন। তাদের উপস্থিতিতেই স্পিকারে তরুণ নেতাকর্মীদের স্লোগান চলছিল। স্লোগানে তাল মিলিয়ে মাঠের ভেতরে চক্কর খাচ্ছিলেন বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলের নানা এলাকার কমিটিগুলোর অনুসারীরা। কারও হাতে জাতীয় পতাকা, কারও হাতে ব্যানার। ছুটে-ছুটে স্লোগানে-স্লোগানে মুখর মাঠের উত্তর পাশে চলছিল বিশ্বকাপ ফুটবলের আয়োজন। রাতের ঢাকায় তখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বাড়তি নিরাপত্তা আর তল্লাশি।

ঝামেলা এড়াতে অনেকে আগেই উপস্থিত হয়েছেন সদলবলে ছাত্রদলের এক নেতা জানান, নেতাদের উদ্যোগেই মাঠের ভেতরে খেলা দেখানোর আয়োজন। সেখানেও স্পিকারে বাজছে প্যারোডি গান– ‘জেলের ভেতরে মাকে, আর থাকতে দেবো না’। মাঠ কাঁপিয়ে তখন মঞ্চঘেঁষা ডিএসসিসির অবকাঠামোর বারান্দায় দাঁড়িয়ে তরুণদের বিক্ষুব্ধ স্লোগান– ‘মহাসচিবের হুলিয়া, এখনি নাও তুলিয়া’। নিয়মিত বিরতিতে স্লোগান চলছিল মাঠের পশ্চিমপাশের সায়েদাবাদমুখী সড়কটিতেও; ‘আপস না সংগ্রাম, সংগ্রাম-সংগ্রাম’।

সমাবেশস্থলে প্রবেশের ঠিক উল্টোদিকে উপপুলিশ কমিশনার ওয়ারী জোনের কার্যালয়। কার্যালয়ের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা পুলিশের একাধিক সদস্য জানান, রাত দেড়টা পর্যন্ত কোনও অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেনি। এমন কোনও খবরও তাদের কাছে আসেনি। অঘটনের কোনও খবর না পেলেও সমাবেশে রাতে আসা নেতাকর্মীরা পড়েছেন শৌচাগার সংকটে। ডিএসসিসির নবনির্মিত ভবনের নিচতলায় বাথরুম থাকলেও ভেতরে পানি নেই। নেই বাতিও। অন্ধকারে ফোনের আলো জ্বালিয়ে দেখা গেলো অসংখ্য আগত সেখান থেকে হতাশমুখে ফিরে যাচ্ছেন।

চলছে মঞ্চ নির্মাণ স্লোগান, মিছিল আর আগত নেতাকর্মীদের সম্মিলনে গোলাপবাগ মাঠ শনিবার মধ্যরাতের আগেই পূর্ণ। কয়েক হাজার নেতাকর্মীর উপস্থিতি আর স্লোগানে উজ্জ্বল সমাবেশস্থল। শনিবার সকালে এখানেই আয়োজন হবে বহুল আলোচিত ঢাকা বিভাগীয় সমাবেশ। আলাপ করে জানা গেলো, ঢাকার আশেপাশের জেলা নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মাদারীপুর, টাঙ্গাইল, নরসিংদী এলাকার নেতাকর্মীরা এরই মধ্যে সমাবেশস্থলে এসেছেন। তবে লক্ষনীয় ছিল ঢাকার অনুসারীদের উপস্থিতি।

সায়েদাবাদমুখী সড়কের পূর্বপাশে চাটাই বিছিয়ে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন রাজধানীর শেরে বাংলা নগর থানা বিএনপির কোষাধ্যক্ষ মো. আনোয়ার হোসেনসহ কমপক্ষে ত্রিশ জনের একটি দল। তারা কথায় কথায় জানালেন, ঢাকার বেশ কয়েকটি থানার লোকেরা সমাবেশস্থলে এসে উপস্থিত হয়েছেন। কী কারণ আগের রাতেই সমাবেশস্থলে আসার? এই প্রশ্নের জবাবে আনোয়ার হোসেনের মন্তব্য, ‘ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ শনিবার অবস্থান নেবে, তাই ঝামেলা এড়াতে আগের রাতেই তারা উপস্থিত হয়েছেন সদলবলে।’

ভিড় জমিয়েছেন নানা পণ্যের স্বল্পপুঁজির বিক্রেতারা কেবল ঢাকারই নয়, ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশে অংশ নিতে দলবলসহ হাজির হয়েছেন চুয়াডাঙ্গা জেলার প্রতিবাদী নাগরিক দলের নেতা নুরুল আমিন। তিন দিন আগে ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন তিনি। লক্ষ্য, সমাবেশে অংশগ্রহণ। আলাপকালে জানালেন, কী হবে ঢাকার সমাবেশ হওয়ার পর। হেড়ে গলায় বললেন, ‘সমাবেশ সফল হলে এই সরকারের পতন নিশ্চিত হবে। এজন্য আনন্দ লাগছে।’ নুরুল আমিনের কণ্ঠ মিলিয়ে যায় মাঠের ভেতরে জেগে ওঠা আরও একটি খণ্ড মিছিলের স্লোগানের ভিড়ে।

 

/এমএএ/
সর্বশেষ খবর
সড়কে লাশ হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী
সড়কে লাশ হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সীমান্ত থেকে আহত অবস্থায় এক যুবককে উদ্ধার
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সীমান্ত থেকে আহত অবস্থায় এক যুবককে উদ্ধার
রংপুরে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের মঞ্চ ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ
রংপুরে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের মঞ্চ ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ
নিজের বিয়েতে নাচতে হবে কিয়ারাকে, এটাই রীতি!
নিজের বিয়েতে নাচতে হবে কিয়ারাকে, এটাই রীতি!
সর্বাধিক পঠিত
যা থাকছে ভূমি অপরাধ প্রতিরোধ ও প্রতিকার আইনে
যা থাকছে ভূমি অপরাধ প্রতিরোধ ও প্রতিকার আইনে
‘বারবার বলেছি আর মারিস না’
‘বারবার বলেছি আর মারিস না’
যুক্তরাষ্ট্রে উড়ছে চীনের গোয়েন্দা বেলুন, প্রস্তুত এফ-২২ যুদ্ধবিমান
যুক্তরাষ্ট্রে উড়ছে চীনের গোয়েন্দা বেলুন, প্রস্তুত এফ-২২ যুদ্ধবিমান
৫০০ ছাত্রীর মধ্যে নিজেকে একা দেখে জ্ঞান হারালো ছাত্র
৫০০ ছাত্রীর মধ্যে নিজেকে একা দেখে জ্ঞান হারালো ছাত্র
৩০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি, ৮ ঘণ্টা পর মিললো লাশ
৩০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি, ৮ ঘণ্টা পর মিললো লাশ