X
মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
২৪ মাঘ ১৪২৯

সময় থাকতে কেটে পড়েন, না হলে পালানোর জায়গা পাবেন না: মির্জা ফখরুল

কুমিল্লা প্রতিনিধি
২৬ নভেম্বর ২০২২, ১৭:৫৬আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১৭:৫৬

বিএনপি মহাসচিব কুমিল্লার গণসমাবেশের মঞ্চে উঠেই উপস্থিত জনতার উদ্দেশে বলেন, ‘গোমতী নাকি কুমিল্লা চান’? এতে উপস্থিত জনতা কুমিল্লা বলে জবাব দেন।

এরপর বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আজ যেখানে আপনারা দাঁড়িয়ে আছেন, এই সমাবেশের জন্যই নয়ন খুন হয়েছে। নয়নের বুকে জ্বলা আগুন এই সমাবেশ। সরকার ভাতে মারছে, গুলিতে মারছে। আর তারা বলছে, ‘আমরা কি রিজার্ভ চিবিয়ে খেয়েছি?’’ আমরা বলবো, রিজার্ভ আপনারা গিলে খেয়েছেন। আপনার মন্ত্রীরা মিলে গিলে খেয়ে মোটা তাজা হয়েছেন। আপনারা দেখেছেন, তারা (এমপি-মন্ত্রীরা) দিন দিন কী মোটা হচ্ছে। ১০ তলা বাড়ি থেকে ২০ তলা বাড়ি হচ্ছে তাদের। কিন্তু দেশের কী হচ্ছে? সময় থাকতে কেটে পড়েন- না হলে পালানোর জায়গা পাবেন না’

শনিবার (২৬ নভেম্বর) কুমিল্লার টাউন হল মাঠে বিভাগীয় গণসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘২০১৮ সালের রাতের ভোট এবার কি আপনারা চান? না চাইলে ১০ ডিসেম্বর আসুন। আমরা নির্দলীয় সরকার ছাড়া কোনও নির্বাচনে যাচ্ছি না। নির্বাচন হবে কেয়ারটেকার (তত্ত্বাবধায়ক) সরকারের হাতে। আপনার মন্ত্রীরা মন্ত্রী থাকবে, আপনি প্রধানমন্ত্রী থাকবেন- আর নির্বাচন দেবেন, তামাশা পেয়েছেন?’

তিনি বলেন, ‘এখন মানুষ বলে আগে জানলে ভাঙা নৌকায় উঠতাম না। মানুষ নৌকায় উঠে ভুলের মাশুল দিচ্ছে। চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ সব কিছুর আকাশ ছোঁয়া দাম। এই সরকার মানুষের স্বপ্ন লুটে খেয়েছে। এ জন্য বলি, মানুষ না খেতে পেরে রাস্তায় নেমেছে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘স্বাধীন হতে ৭১ সনে একবার যুদ্ধ করেছি। এখন আবার যুদ্ধ করতে হচ্ছে ভোটের অধিকারের জন্য। আমরা আরেকটা ৭১ আনবো। এবারের যুদ্ধ হবে ভোট চোর, কম্বল চোরের বিরুদ্ধে।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘অনেক মন্ত্রীরা দেখি, কী কী জানি বলে। আপনারা বলেন, আওয়ামী লীগ নির্দলীয় সরকারের মাধ্যমে নির্বাচন করলে কী জামানত থাকবে? শোনেন, এই সাধারণ মানুষকে নিয়ে যেমন খুশি তেমন আর করার সুযোগ নেই।’

তিনি বলেন, ‘শুনেছি, ১৫ দিনে নাকি রাজশাহীতে ৩৫ মামলা হয়েছে। সব গায়েবি মামলা। ১০ ডিসেম্বরের আগে এমন বহু গায়েবি মামলা হবে। এদের (সরকারের) চামড়া গণ্ডারের মত। সব করে তারা দোষ দেয় বিএনপির। তারা বলে, আমরা নাকি অগ্নিসন্ত্রাস করবো। শুনুন, অগ্নিসন্ত্রাস করতে গিয়ে চট্টগ্রামে ছাত্রলীগের ক্যাডাররা ধরা খেয়েছে বিএনপি নয়।’

ফখরুল বলেন, ‘১০ বছরের এই লুটেরা সরকার খেয়েছে ৮৬ লাখ কোটি টাকা। আর এক বছরে বিদ্যুতের নামে খেয়েছে ৭৮ হাজার কোটি টাকা। এগুলা কে খেয়েছে? বিএনপি? শোনেন পত্রিকায় দেখলাম, গণসমাবেশে সাধারণ মানুষ যাচ্ছে। আচ্ছা এটা কী অস্বাভাবিক কিছু? মানুষ এখন নিরুপায়। তারা নাকি আমাদের পূর্বাচলে পাঠাবে, তারপর আরেকটু এগিয়ে আসলেন সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। আমরা বলি, আরেকটু এগিয়ে আসুন। তাছাড়া উপায় নাই। এগিয়ে আসতেই হবে। ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশ পল্টনেই হবে। সব ফয়সালা রাজপথে হবে। গুম, খুন হত্যা, নির্যাতন সব কিছুর বিচার হবে- বাংলার মাটিতেই হবে। এ দেশের মানুষ করবে।’

/এফআর/
সর্বশেষ খবর
জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে আইনজীবীর আবেদন
জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে আইনজীবীর আবেদন
বেলজিয়ামের রানির সফর রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহায়ক হবে: তথ্যমন্ত্রী
বেলজিয়ামের রানির সফর রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহায়ক হবে: তথ্যমন্ত্রী
ইউক্রেনে সফল আক্রমণের গোলাবারুদ নেই রাশিয়ার: যুক্তরাজ্য
ইউক্রেনে সফল আক্রমণের গোলাবারুদ নেই রাশিয়ার: যুক্তরাজ্য
গুগল আনছে চ্যাটজিপিটির প্রতিদ্বন্দ্বী বার্ড
গুগল আনছে চ্যাটজিপিটির প্রতিদ্বন্দ্বী বার্ড
সর্বাধিক পঠিত
উপহারের গাড়িটি অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে মানুষের জন্য ব্যবহৃত হবে: হিরো আলম
উপহারের গাড়িটি অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে মানুষের জন্য ব্যবহৃত হবে: হিরো আলম
বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে পিএসসি
বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে পিএসসি
উপহারের গাড়ি নিতে হবিগঞ্জ যাচ্ছেন হিরো আলম
উপহারের গাড়ি নিতে হবিগঞ্জ যাচ্ছেন হিরো আলম
হিরো আলমের গাড়ি আটকে জরিমানা ও মামলা করলো পুলিশ
হিরো আলমের গাড়ি আটকে জরিমানা ও মামলা করলো পুলিশ
সৌদি আরবে চাকরি: পাঁচ খাতে দক্ষতার সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক
সৌদি আরবে চাকরি: পাঁচ খাতে দক্ষতার সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক