প্রকাশ্যে-সংসদে রাঙ্গার ক্ষমা চাওয়া উচিত: মির্জা ফখরুল

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৫৩, নভেম্বর ১৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০৮, নভেম্বর ১৩, ২০১৯

মির্জা-ফখরুলস্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেনকে ‘ইয়াবাখোর’ বলে মন্তব্য করায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গার কঠোর সমালোচনা করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘প্রকাশ্যে সংসদে—সব জায়গায় রাঙ্গার ক্ষমা চাওয়া উচিত।’ বুধবার (১৩ নভেম্বর) রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত করতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির নতুন কমিটি গঠনের পর ওই কমিটির পক্ষ থেকে জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিলাম, সেই স্বৈরাচারকে সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করেছিল। ভোট ডাকাতির লড়াইয়ে তাদের সঙ্গী করে সংসদে নিয়ে এসেছে। তাদেরই মহাসচিব সে গণতন্ত্রকে অত্যন্ত ন্যক্কারজনকভাবে আক্রমণ করেছেন।’

রাঙ্গার বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সম্পূর্ণভাবে এই কথাগুলো রাজনৈতিক শিষ্টাচারবহির্ভূত। এসব কথায় গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে পুরোপুরি অপমান করা হয়েছে। বাংলাদেশের মানুষকে অপমান করা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্রের জন্য যিনি জীবন দিয়েছেন, সেই নূর হোসেনকে নিয়ে কথা বলেছেন। তিনি স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের প্রতীক ছিলেন, তার বিরুদ্ধে রাঙ্গা কথা বলেছেন। এজন্য তার প্রকাশ্যে সংসদে ক্ষমা চাওয়া উচিত।’

‘বিএনপি থেকে অনেকেই আওয়ামী লীগে যেতে চান’—তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তথ্যমন্ত্রী প্রায়ই এ ধরনের কথাবার্তা বলে থাকেন। এতে তার সৃজনশীলতার আওয়াজ পাওয়া যায়। নতুন নতুন গল্প তৈরি করেন তিনি।’

নেতাদের বিএনপি থেকে পদত্যাগ প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘নেতারা পদত্যাগ করছেন, এটা আপনাদের কাছে জানতে পারছি। আমি এখনও জানি না।’

খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনের বিষয়ে ফখরুল বলেন, ‘তার মুক্তির জন্য আন্দোলন করছি।’ আগামী দিনে এ আন্দোলন বেগবান করে সামনে এগিয়ে যাবেন বলেও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

/এসটিএস/এমএনএইচ/এমওএফ/

লাইভ

টপ