সরকার নির্বাচনের মাজা ভেঙে দিয়েছে: চরমোনাই পীর

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:৪৯, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৫২, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম (ছবি: সাজ্জাদ হোসেন)

ইসলামী আন্দোলনের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, বর্তমান সরকার নির্বাচনের মাজা ভেঙে দিয়েছে। দেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে আমরা চরমভাবে উদ্বিগ্ন। শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি)এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

চরমোনাই পীর বলেন, বর্তমান সময়ে মানুষের মৌলিক অধিকার সবচেয়ে বেশি খর্ব হচ্ছে। মানুষের নাগরিক অধিকার ও ভোটাধিকার নেই। মানুষ মুখ খুলে কথা বলতে পারছে না। এমতাবস্থায় একটি দেশ চলতে পারে না। এর আশু সমাধান হওয়া প্রয়োজন।

বিবৃতিতে মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, রাজনৈতিক দল ও জনগণকে অবহিত না করে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ- ১৯৭২ (আরপিও)’র সংশোধনীর উদ্যোগ নিয়ে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো একটি নতুন ষড়যন্ত্র। নিয়ম হল আরপিওতে সংশোধনী থাকলে তা নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা-পর্যালোচনা করে তা প্রস্তাব আকারে পেশ করা। কিন্তু তা না করে নির্বাচন কমিশন গোপনে প্রস্তাব পেশ করে জাতীয় স্বার্থবিরোধী কাজ করেছে।

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম আরও  বলেন, আরপিও এর এসব সংশোধনী প্রস্তাব আইনে পরিণত হলে নির্বাচনে অসৎ ব্যক্তিবর্গ, কালো টাকার মালিক, ঋণ খেলাপি-বিল খেলাপি, অবৈধভাবে সম্পদ আহরণকারী ব্যক্তিদের প্রভাব ও দৌরাত্ম্য আরও বৃদ্ধি পাবে। নির্বাচনে সৎ মানুষের আর কোনও জায়গা থাকবে না। জামানতের টাকা যেখানে কমানো দরকার সেখানে উল্টো জামানতের পরিমাণ ৫০ হাজার টাকায় উন্নীত করা পুরোপুরি অগণতান্ত্রিক ও স্বেচ্ছাচারী পদক্ষেপ। ফলে সৎ, সংগ্রামী, নিবেদিতপ্রাণ, জনদরদি রাজনৈতিক নেতা-সংগঠকদের জন্য নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা রীতিমতো অসম্ভব হয়ে পড়বে। 

 

 

/সিএ/টিএন/

লাইভ

টপ