নারী-শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন শুরু করবে ১৪ দল

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৫:৩৬, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৩৯, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০

মোহাম্মদ নাসিম (ফাইল ফটো)

নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে আগামী ১ মার্চ থেকে সামাজিক আন্দোলন শুরু করবে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দল। ওইদিন স্বাধীনতার স্মৃতি বিজড়িত শিখা চিরন্তনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে একত্রিত করে তারা শপথ নেবে।

বুধবার (২৬ ফেব্রুয়োরি) ১৪ দলের এক মতবিনিময় সভা থেকে জোটের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। বঙ্গবন্ধূ অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘‘নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য মুজিববর্ষের সেই মুহূর্তকে বেছে নিয়েছি। মহান স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রথম দিন ১ মার্চ সব সামাজিক ও স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি, পেশাজীবী মানুষ, নারী-পুরুষ নির্বিচারে বিকাল তিনটায় শিখা চিরন্তনের সামনে আসুন। শেখ হাসিনার নির্দেশ, ‘নারী ও শিশু নির্যাতন রুখে দাড়াও বাংলাদেশ’ স্লোগানকে সামনে রেখে ১৪ দল স্বাধীনতার পক্ষের সব শক্তিকে এই কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছে।’’

তিনি বলেন, ‘এই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই ৭ মার্চের ভাষণ দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। এখানে পাকিস্তানি বাহিনী আত্মসমর্পণ করেছিল। এখান থেকে অঙ্গীকার করবো— এই স্বাধীন বাংলাদেশে একটাও নারী নির্যাতন আমরা হতে দেবো না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তাদের বিচার করা হবে। চরম দণ্ড কার্যকর করা হবে। শিল্প, স্বাস্থ্য, নারীর ক্ষমতায়নসহ সব ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, তাহলে কেন আমরা একটি পাশবিক ও দানবীয় শক্তিকে দমন করতে পারবো না। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশে আমরা কোনও নারী নির্যাতন, কোনও শিশু নির্যাতন, দুর্বৃত্তায়ন দেখতে চাই না। অপরাধী যেই হোক তাকে ছাড় দেওয়া হচ্ছে না। নিজের দল হলেও তিনি (শেখ হাসিনা) খাতির করেন না।’

নারী ও শিশু নির্যাতনকারীদের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে শাস্তি নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়ে নাসিম বলেন, ‘দ্রুত বিচার টাইব্যুনাল আছে, এরপরও আমরা চাইবো আরও  সংক্ষিপ্ত করে, আরও কম সময়ের মধ্যে দ্রুত বিচার করে, এই দানবীয় শক্তিদের চরমভাবে মৃত্যুদণ্ড দিতে হবে। এটা দাবি,এটা প্রস্তাব আমাদের।’

১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে সন্ধ্যা ছয়টায় মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ থেকে ১৪ দলেল আয়োজনে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করার মাধ্যমে স্বাধীনতার বিরোধী শক্তির অন্ধকারকে দূর করার কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে বলেও জানান মোহাম্মদ নাসিম।

 

/ইএইচএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ