‌‌খালেদা জিয়ার মুক্তিতে আমরা কিছুটা আবেগ আপ্লুত: মির্জা ফখরুল

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:৪৮, মার্চ ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৫৫, মার্চ ২৫, ২০২০

মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর (ফাইল ছবি)বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তিতে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মুক্তিতে আমরা কিছুটা আবেগ আপ্লুত তো বটেই; স্বস্তিও বোধ করছি। তবে কিছুটা আতঙ্কিত বোধ করছি—এই ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি তার যেন কোনও ক্ষতি না করে।’

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আইনমন্ত্রী এক সংবাদ সম্মেলনে ৪০১ ধারায় খালেদা জিয়াকে সাময়িক মুক্তি দেওয়ার কথা বলেছেন। তবে তা শর্তযুক্ত। তা হচ্ছে—এই সময়ের মধ্যে তিনি বিদেশে যেতে পারবেন না। বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিতে হবে। এটা আমার কাছে বোধগম্য নয়।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘অনেকেই তাকে এক নজর দেখার জন্য কাছে যাওয়া চেষ্টা করবেন। কিন্তু আজকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সারাবিশ্বেই ছড়িয়ে পড়েছে। হাজারও মানুষ মারা গেছে। ফলে তার স্বাস্থ্যের নিরাপত্তার জন্য পিজি হাসপাতাল বা তার বাড়ির সামনে অযথা জমায়েত করবেন না। এতে করে ম্যাডামের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা আছে।’

খালেদা জিয়ার ডায়াবেটিকস ও অ্যাজমা রোগ আছে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই সমস্যাগুলো করোনাভাইরাসের জন্য অত্যন্ত মারাত্মক। ফলে আমাদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। কেউ ভিড় করবেন না, তার বাড়ি কিংবা হাসপাতালের সামনে।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আমরা খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেছি। সেই অনুযায়ী একটি টিমও গঠন করা হয়েছে। যাতে তাকে বাসায় সুষ্ঠু চিকিৎসা করা যায়, সেই ব্যবস্থা করছি। একইসঙ্গে ম্যাডামের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করবে তিনি হাসপাতালে নাকি বাসায় চিকিৎসা নেবেন। এটা আমরা এখন জানি না, কারণ তার সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি।’

খালেদা জিয়া আইনগতভাবে তার প্রাপ্য সাময়িকভাবে হলেও পেয়েছেন উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা আশা করি, তিনি সঠিক সময়ে কারাগার থেকে বের হতে পারবেন। যদিও এখন পর্যন্ত সরকারের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এসে পৌঁছেছে কিনা জানি না। আশা করছি, শিগগিরই আসবে।’

/এএইচআর/এনএস/আইএ/

লাইভ

টপ