এন্ড্রু কিশোরের প্রয়াণে শোকাহত রাজনীতিকরা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০১:৪৯, জুলাই ০৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩১, জুলাই ০৭, ২০২০

এন্ড্রু কিশোর (৪ নভেম্বর ১৯৫৫-৬ জুলাই ২০২০)জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন দেশের বেশ কয়েকটি দলের রাজনীতিকরা। ‘প্লেব্যাক সম্রাট’খ্যাত এন্ড্রু কিশোর আজীবন অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে নতুন প্রজন্মের শিল্পীদের কাছে বলে মন্তব্য করেছেন রাজনীতিকরা। তার মৃত্যুতে সংগীতাঙ্গণে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা সহসাই পূরণ হবার নয়। এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে বিএনপি, জাপা, ন্যাপ, বিপ্লবী ওয়ার্কাস পার্টিসহ অন্যান্য দলগুলোর পাঠানো শোক বিবৃতিতে রাজনীতিকরা এসব কথা বলেন। 

সোমবার (৬ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টা ৫৯ মিনিটের দিকে কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। 

এন্ড্রু কিশোরে  মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম ইসলাম।

শোকবানীতে বিএনপি মহাসচিব  মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘অসংখ্য পুরুস্কার জয়ী বরেণ্য সংগীত শিল্পী এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে সারাদেশে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তিনি ছিলেন দেশের সংগীতভুবনে এক অপ্রতিদ্বন্দ্বী কন্ঠশিল্পী। কয়েক দশক ধরে সংগীতজগতে তার কন্ঠের সুরের যাদুতে মাতিয়ে রেখেছিলেন। বিভিন্ন ধারার গানে কৃতিত্বের স্বাক্ষর থাকলেও তার গাওয়া বাংলা আধুনিক গান পেয়েছিলো এক নতুন মাত্রা।’

এন্ড্রু কিশোরের অসংখ্য জনপ্রিয় গান এখনও মানুষের মানুষের মুখে মুখে উচ্চারিত হয়, উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘তিনি দুরন্ত ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে অকালে পৃথিবী থেকে চলে গেছেন। দেশবাসী সবসময় এই যাদুকরি কন্ঠশিল্পীর জন্য গর্বিত থাকবে। তার মৃত্যু বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে এক বিরাট শূন্যতার সৃষ্টি হলো।’

এন্ড্রু কিশোর ছিলেন বাংলা গানের বরপুত্র এমন মন্তব্য করেন জাপার চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের। তিনি বলেন, ‘তার জাদুকরী কন্ঠে বিমোহিত করেছেন কোটি কোটি মানুষ। তিনি আজীবন অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে নতুন প্রজন্মের শিল্পীদের সামনে।’

শোকবার্তায় বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি- ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন,  ‘জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যু বাংলা সংগীতাঙ্গনে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে, তা পূরণে বহু সময়ের প্রয়োজন হতে পারে।’

বিপ্লবী ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি সাইফুল হক বলেন, ‘এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে আধুনিক বাংলা গানে এক বড় শূন্যতা  তৈরি হলো। তিনি শিল্পীর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

জাসাস সহ সভাপতি শায়রুল কবির খান বলেন, ‘এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যু নিঃসন্দেহে বাংলা সঙ্গীতের অনেক বড় বিয়োজন। তার কণ্ঠে যেভাবে বাংলা গানের উজ্জীবন ঘটেছে, তাতে সারা জাতি তাকে স্মরণ করবেন দীর্ঘকাল।’

/এএইচআর/এসটিএস/এফএএন/

লাইভ

টপ