‘ডিজিটাল আইন সরকারের দুর্নীতি ধামাচাপা দেওয়ার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:৪৩, জুলাই ০৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৪৭, জুলাই ০৯, ২০২০

 

অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার‘ডিজিটাল আইন সরকারের দুর্নীতি ধামাচাপা দেওয়ার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার। তিনি বলেন, ‘অভিজ্ঞমহল মনে করেন, সরকারের মন্ত্রী-এমপি এবং সরকার দলীয় লুটেরারা যাতে অবাধে দুর্নীতি করতে পারে, তার জন্যই এই হয়রানিমূলক আইনটি করা হয়েছে। মূলত এই আইনকে সরকার নিজেদের দুর্নীতি ধামাচাপা দেওয়ার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে।’

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে এসব অভিযোগ করেন অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার রোধ এবং এই আইনের মাধ্যমে গ্রেফতার ও হয়রানি বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে এ বিবৃতি দেওয়া হয়।

মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে এই আইনের অপপ্রয়োগের মাধ্যমে এটি প্রমাণিত হয়েছে যে, স্বাধীন মত প্রকাশ ও কণ্ঠরোধ করার জন্যই এই আইনটি তৈরি করা হয়েছে। সাংবাদিক, চিকিৎসক, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এমনকি ১৫ বছরের বালকও এই আইনের অপব্যবহার থেকে রেহাই পাচ্ছেন না।’

অধ্যাপক মুজিবুর রহমান

এদিকে, গণমাধ্যমে পাঠানো পৃথক আরেকটি বিবৃতিতে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আর্থিক প্রণোদনা প্রদানের আহ্বান জানিয়েছেন জামায়াতের নায়েবে আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান। তিনি বলেন, ‘খুবই পরিতাপের বিষয় সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন খাতে আর্থিক প্রণোদনার ঘোষণা দেওয়া হলেও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে এখনও কোনও সহযোগিতার কথা ঘোষণা করা হয়নি।’

দেশের স্বার্থে বেসরকারি এ বিপুল সংখ্যক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য অনতিবিলম্বে আর্থিক প্রণোদণা ঘোষণা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান মুজিবুর রহমান।

 

/এসটিএস/এপিএইচ/

লাইভ

টপ