বুধবারও উপনির্বাচনের প্রচারণা চালাননি জাপা প্রার্থী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:৪৫, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৫১, অক্টোবর ২৮, ২০২০

নাসির উদ্দিন সরকারনির্বাচন কমিশন ঢাকা-১৮ আসন উপনির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছিল গত শুক্রবার (২৩ অক্টোবর)। প্রতীক বরাদ্দের দিন থেকেই সমানতালে নির্বাচনি প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে এই আসনের আওয়ামী লীগ ও বিএনপি মনোনীত প্রার্থীরা। কিন্তু গত ছয় দিনে মাত্র একঘণ্টা প্রচারণা চালিয়েছেন সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী নাসির উদ্দিন সরকার। বুধবারও (২৮ অক্টোবর) প্রচারণায় নামেননি তিনি।

জাপার প্রার্থী নাসির উদ্দিন সরকার বুধবার (২৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৮টায় বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমি অসুস্থ তাই প্রচারে নামিনি। সুস্থ হলে প্রচারণা চালাবো।’ গত ছয় দিনেও আপনাকে মাত্র একঘণ্টা নির্বাচনী প্রচারণায় দেখা গেছে, জাপার কেন্দ্রীয় নেতারাও আপনার প্রচারণায় অংশ নেয়নি, এর কারণ জানতে চাইলে নাসির উদ্দিন বলেন, ‘আসলে এখানেও জয়ী হয়ে গেছে। এই কারণে দলের কেন্দ্রীয় নেতারও কেউ প্রচারে আসে না।’

কোনও দলের প্রার্থী জয়ী হয়ে গেছে জানতে চাইলে তিনি এই প্রতিবেদকে বলেন, ‘আপনি কি বোঝেন না কারা নির্বাচনে জয়ী হবে।’

তাহলে নির্বাচনে কেন অংশ নিয়েছেন প্রশ্ন করলে নাসির উদ্দিন সরকার বলেন, ‘আমি এইখানকার স্থায়ী, তাই দল থেকে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে। নির্বাচন উপলক্ষে দলের সাংগঠনিক অবস্থা যতুটুকু পারা যায় শক্তিশালী করার জন্য আমাদের নির্বাচনে অংশ নেওয়া। আমাদের তো আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির মতো শক্তিশালী সংগঠন নেই।’

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে ঢাকা-১৮ আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়। নির্বাচন কমিশন (ইসি) ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ১২ নভেম্বর ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিব হাছান ও বিএনপির প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১ ও ১৭নং ওয়ার্ড এবং দক্ষিণখান, খিলক্ষেত, তুরাগ, উত্তরা এবং উত্তরখান থানা নিয়ে ঢাকা-১৮ আসনটি গঠিত। এই আসনের মোট ভোটার পাঁচ লাখ ৫৫ হাজার ৭১৩ জন।

আরও পড়ুন: প্রার্থী দিয়েই ‘দায়িত্ব শেষ’ জাপার

/এএইচআর/এনএস/

লাইভ

টপ