X
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪
৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

১৩ বছর পর আবারও লেবাননের কাছে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
১১ জুন ২০২৪, ২৩:৫৪আপডেট : ১২ জুন ২০২৪, ০০:০৩

২০১১ সালের ২৩ জুলাইয়ের দুঃসহ স্মৃতি আবারও ফিরিয়ে আনলো বাংলাদেশ। সেবার ২০১৪ বিশ্বকাপ বাছাইয়ে অ্যাওয়ে ম্যাচে লেবাননের কাছে ৪ গোলে বিধস্ত হয়েছিল বাংলাদেশ। ১৩ বছর পর ২০২৬ বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আজ অ্যাওয়ে ম্যাচেই একই ব্যবধানে বিধ্বস্ত হলো হাভিয়ের কাবরোর দল! ঢাকায় গত নভেম্বরে প্রথম দেখায় ১-১ গোলে ড্র করেছিল বাংলাদেশ। 

প্রত্যাশার বেলুন ফুলিয়ে কাতারের খলিফা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে বাংলাদেশ। লেবাননের অধিনায়ক হাসান মাতুকের হ্যাটট্রিকে উড়ে গেছে জামাল ভূঁইয়ারা।

ঢাকায় যেভাবে লড়াই করেছিল বাংলাদেশ, কাতারে এসে সেভাবে খেলতে পারলো কোথায়? বিশ্বকাপ বাছাইয়ে গ্রুপের শেষ ম্যাচে লেবাননের বিপক্ষে নিজেদের ভুলে শুরুতে পেনাল্টি উপহার পেলো লেবানন। বিরতিতে যাওয়ার ঠিক আগমুহূর্তে ব্যবধান দ্বিগুণ করে মধ্যপ্রাচ্যের দলটি। বিরতির পর আরও দুই গোল করে বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে পুরোপুরি ছিটকে দেয়। 

কাতারের খলিফা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে শুরুতে দুটি পরিবর্তন এনে একাদশ সাজায় বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মোহাম্মদ সোহেল রানা চোট পেয়েছিলেন। হয়তো এই কারণে জামালের অন্তর্ভুক্তি। এছাড়া ডিফেন্ডার মেহেদী হাসান মিঠু নেই। শাকিল হোসেন তার বদলে। ৫-৩-২ ছকে ম্যাচ শুরু হতে না হতেই বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। কিছু বুঝে ওঠার আগে চাপ নিয়ে নেয়। ভুল পাসে আর মনোসংযোগ ঘাটতে পিছিয়ে পড়তে হয় এই অর্ধে। লেবানন বরং নিজেদের মুন্সিয়ানা দেখিয়ে একের পর এক গোল আদায় করে নিয়েছে।

ম্যাচ শুরুর ৩৫ সেকেন্ডের মধ্যে বাংলাদেশ গোল হজম করতে বসেছিল। গড়বড় পাকিয়ে ফেলেছিলেন তারিক কাজী। প্রতিপক্ষের আক্রমণ ক্লিয়ার করতে গিয়ে তারিক গোলকিপার মিতুলকে পাস দিতে গিয়ে আর একটু হলেই বল জড়িয়ে দিচ্ছিলেন জালে। তবে ভাগ্য ভালো বল পোস্টের একটু বাইরে দিয়ে যায় বল।

৩ মিনিটে বাংলাদেশের ভুলে লেবাননের এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ হয়। অপেশাদার আচরণ করেন ডিফেন্ডার শাকিল হোসেন। কর্নার থেকে বলের লড়াইয়ে তার জার্সি পেছন থেকে টেনে ধরেন জিহাদ আইয়ুব। তৎক্ষণাত ডান হাত বাড়িয়ে সামনের দিকে দাঁড়ানো এক লেবানিজের চোখে আঘাত দিয়ে বসেন বাংলাদেশের ডিফেন্ডার। 

শাকিলকে হলুদ কার্ডের পাশাপাশি মালয়েশিয়ার রেফারি পেনাল্টির নির্দেশ দেন। পঞ্চম মিনিটে হাসান মাতুক স্পট কিক থেকে গোলকিপারের বিপরীত দিক দিয়ে জাল কাঁপান।

১৩ মিনিটে লেবানন ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ নষ্ট করে। ওমর চাবান বক্সে ঢুকে কোনাকুনি জোরালো শট নিলেও মিতুল ঝাঁপিয়ে পড়ে গোল হতে দেননি।

লেবাননের হাইপ্রেসিং ফুটবলের সামনে প্রতি আক্রমণে উঠে গোল করার চেষ্টা বাংলাদেশের। তবে তেমন সুবিধা করতে পারেনি।

১৬ মিনিটে বাংলাদেশ সুযোগ পায়। ডান দিক দিয়ে জামালের পাসে রাকিব বক্সে ঢুকে লক্ষ্যে শট নেন, তবে প্রতিপক্ষ গোলকিপার এক হাত দিয়ে প্রতিহত করে তাদের সমতায় ফিরতে দেননি। ফিরতি বলে আরেক ডিফেন্ডার পুরোপুরি ক্লিয়ার করে দৌড়ে আসা শেখ মোরসালিন ও ইসা ফয়সালকে শট নিতে কোনও সুযোগই দেয়নি।

৩৩ মিনিটে আবারও লেবানন সুযোগ পায়। কর্নার থেকে বল ঘুরে এসে কাশেম জেইন পেয় সাইড ভলিতে চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু মিতুল জায়গায় দাঁড়িয়ে তা প্রতিহত করে দেন।

যোগ করা সময়ে বাংলাদেশের জন্য আরও দুঃসংবাদ। লেবানন ব্যবধান বাড়ায়। নাসার নাসারের ক্রসে নাদের মাতার বল রিসিভ করে চকিতে শরীর ঘুরিয়ে দারুণ শটে মিতুলকে পরাস্ত করেন। তার সামনে শাকিল ও শরীরের সঙ্গে সেঁটে থাকা তপু কিছুই করতে পারেননি!

বিরতির পর শাকিলের জায়গায় মজিবর রহমান জনি নামেন। তাতে অবশ্য ম্যাচে ফেরার চ্যালেঞ্জটা সেভাবে নিতে পারেনি বাংলাদেশ।

৪৯ মিনিটে বরং লেবানন তৃতীয় গোল পায়। করিম দারবেশের কাটব্যাক থেকে হাসান মাতুক ফাঁকায় প্লেসিং করে দেন।
৫৭ মিনিটে বাংলাদেশ এক গোল শোধ দেওয়ার সুযোগ পায়। শেখ মোরসালিনের শট পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়। পরের মিনিটে মোরসালিনের বুদ্ধিদ্বীপ্ত পাসে রাকিব বক্সের ভেতরে ক্রসবারের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন। এটাই ছিল সবচেয়ে ভালো সুযোগ।

লেবাননের তখনও গোলের খিদা কমেনি।

৬০ মিনিটে হাসান মাতুক বক্সে ঢুকে এক ঝটকায় তপুকে ছিটকে ফেলে ডান পায়ের জোরালো কোনাকুনি শটে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন। হ্যাটট্রিক করেই মাঠ ছাড়েন ১৮ বছর ধরে খেলা এই ফরোয়ার্ড। এরই সঙ্গে ক্যারিয়ারে শেষ ম্যাচটিও খেলে ফেললেন। সতীর্থরা দারুণ সম্ভাষণ জানিয়ে বিদায়টা স্মরণীয় করে রাখলেন।

৬৯ মিনিটে জামালের জায়গায় শাহরিয়ার ইমন নামেন। নেমে উইং দিয়ে আক্রমণ করার চেষ্টা। তবে সফল হতে পারেনি লেবাননের জমাট রক্ষণের কারণে।

শেষের দিকে বিশ্বনাথ ঘোষ, কাজেম শাহ ও রফিকুল ইসলাম নামেন। কানাডা প্রবাসী কাজেমের তো অভিষেক হলো। তারা নেমেও ম্যাচের চিত্র বদলাতে পারেনি। মাঠে আসা হাজারো সমর্থকদের সামনে বড় ব্যবধানে হেরে বিশ্বকাপ বাছাই শেষ করলো বাংলাদেশ। গ্রুপে এক পয়েন্ট নিয়ে সবার তলানিতে থেকে দেশে ফিরে আসতে হচ্ছে তাদের।

বাংলাদেশ একাদশ: গোলকিপার- মিতুল মারমা, ডিফেন্ডার- তপু বর্মণ, শাকিল হোসেন, ইসা ফয়সাল(বিশ্বনাথ ঘোষ), সাদ উদ্দিন ও তারিক কাজী, মিডফিল্ডার- মোহাম্মদ হৃদয়, সোহেল রানা ও জামাল ভূঁইয়া(শাহরিয়ার ইমন), ফরোয়ার্ড- শেখ মোরসালিন(কাজেম শাহ) ও রাকিব হোসেন(রফিকুল ইসলাম)।

/টিএ/এফএইচএম/
সম্পর্কিত
‘প্লিজ আমাকে একা থাকতে দিন, কথা বলার মতো অবস্থায় নেই’
লেবাননের বিপক্ষে জামালের সঙ্গে আর কে ফিরলেন বাংলাদেশের একাদশে?
বাংলাদেশকে লেবানন কোচের কঠোর বার্তা
সর্বশেষ খবর
নিরাপত্তা হুমকির সঙ্গে পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডারকে উন্নত করছে ন্যাটো
নিরাপত্তা হুমকির সঙ্গে পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডারকে উন্নত করছে ন্যাটো
‘সুপার এইট’ মিশনে বাংলাদেশের সামনে এবার ডাচরা
‘সুপার এইট’ মিশনে বাংলাদেশের সামনে এবার ডাচরা
বাংলাদেশে ১০ শিশুর মধ্যে ৯ জনই পারিবারিক সহিংসতার শিকার: ইউনিসেফ
বাংলাদেশে ১০ শিশুর মধ্যে ৯ জনই পারিবারিক সহিংসতার শিকার: ইউনিসেফ
ঈদসংখ্যা
ঈদসংখ্যা
সর্বাধিক পঠিত
ড. ইউনূসের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে: দুদক পিপি
ড. ইউনূসের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে: দুদক পিপি
অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা, আমরা বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বকে সম্মান করি: ডোনাল্ড লু
অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা, আমরা বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বকে সম্মান করি: ডোনাল্ড লু
কাঁপছে সেন্টমার্টিন, আকাশে উড়ছে যুদ্ধবিমান
কাঁপছে সেন্টমার্টিন, আকাশে উড়ছে যুদ্ধবিমান
‘কমিশনার ১৭০ কোটি টাকা মাফ করে দেন, এনবিআরের চেয়ারম্যান কোথায়?’
‘কমিশনার ১৭০ কোটি টাকা মাফ করে দেন, এনবিআরের চেয়ারম্যান কোথায়?’
সীমান্তে গুলি চালাতে পারে বিএসএফ, সতর্ক করে বিজিবির মাইকিং
সীমান্তে গুলি চালাতে পারে বিএসএফ, সতর্ক করে বিজিবির মাইকিং