এবার নাঈম হাসানের বদলি তাইজুল (ভিডিও)

Send
রবিউল ইসলাম, কলকাতা থেকে
প্রকাশিত : ১৮:৪৪, নভেম্বর ২২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫২, নভেম্বর ২২, ২০১৯

নাঈমের মাথায় আঘাত লাগার পর কোহলির অনুরোধে মাঠে আসেন ভারতীয় ফিজিও। ভারতের বিপক্ষে দিবা-রাত্রির টেস্টের একই ইনিংসে দ্বিতীয়বারের মতো কনকাশন-সাব নিতে হয়েছে বাংলাদেশ দলকে। মাথায় আঘাত পেয়ে লিটনের বদলে মাঠে নেমেছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

ভারতীয় পেসারদের তোপে কয়েক ওভার পর আবারও কনকাশন-সাব নেওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। নাঈম মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হলেও ব্যাট করে গেছেন সাজঘরে ফেরার আগ পর্যন্ত। তবে ম্যাচ শেষে জানা গেলো নাঈমের বদলেও প্রয়োজন হচ্ছে কনকাশন-সাব। তার বদলে খেলবেন স্পিনার তাইজুল।

বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানান, ‘হাসপাতালে লিটনের স্ক্যান করা হয়েছে। ম্যাচের বাকি দিন আর খেলবেন না লিটন। মেহেদী হাসান মিরাজ কনকাশন-সাব হিসেবে খেলবেন।’ পরে অবশ্য ছেড়ে দেওয়া হয় লিটনকে। 

নাঈম হাসানেরও এমআরআই টেস্ট করানো হয়েছে।স্থানীয় উডল্যান্ড হাসপাতালের ইমার্জেন্সি এবং ক্রিটিক্যাল কেয়ার স্পেশালিস্ট ডক্টর সপ্তর্ষী বসু জানিয়েছেন, আঘাতে কোনো সমস্যা পাওয়া যায়নি। তারপরও সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে তাদেরকে পর্যবেক্ষণে রাখা হচ্ছে। এর মধ্যে কোনো সমস্যা পাওয়া গেলে তারা আবার হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগ করবে।

ক্রিকেট ইতিহাসে একই ইনিংসে দুইবার এমন কনকাশন-সাব নেওয়ার রেকর্ড নেই। নাঈমের বদলে দ্বিতীয় কনকাশন হিসেবে মাঠে নেমেছেন তাইজুল। ৩০তম ওভারে ইশান্ত শর্মার একটি বল নাঈমের মাথায় আঘাত হানলে কিছুক্ষণের জন্য খেলা বন্ধ ছিল। নাঈম কিছুক্ষণ ভারতীয় ফিজিওর শুশ্রূষা নিয়ে কয়েক মিনিট পর ব্যাটিং চালিয়ে যেতে থাকেন। কিন্তু দুই বলের ব্যবধানে ব্যক্তিগত ১৯ রানে ক্লিন বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরে যান তিনি। ইনিংস শেষে জানা যায়, মাথায় আঘাত পাওয়ার কারণে তাকে খেলানোর ঝুঁকি নিতে চাচ্ছে না টিম ম্যানেজমেন্ট। তাই বোলিংয়ের সময় বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামকে মাঠে নামায় টিম ম্যানেজমেন্ট।

আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, কেবলমাত্র মাথায় আঘাত পাওয়া খেলোয়াড়দের বদলি নামানোর সুযোগ আছে। স্কোয়াডে থাকা খেলোয়াড়দের মধ্য থেকে ব্যাটসম্যানের বদলে ব্যাটসম্যান ও বোলারের পরিবর্তে বোলার নামতে পারেন। যাকে বলা হচ্ছে লাইক ফর লাইক রিপ্লেসমেন্ট। সেই সুযোগেই নাঈমের বদলে মাঠে নেমেছেন তাইজুল ইসলাম।

এ বছরের অ্যাশেজে প্রথমবার ক্রিকেট বিশ্ব ‘কনকাশন-সাব’ দেখেছিল স্টিভেন স্মিথের মাথায় আঘাত পাওয়ার মাধ্যমে। ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার টেস্টে স্মিথের বদলি হিসেবে নেমেছিলেন মার্নাস ল্যাবুশেন।

বাংলাদেশ দলে একের পর এক ইনজুরির মিছিল যোগ হচ্ছে। মায়ের অসুস্থতার জন্য মোসাদ্দেক হোসেন টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে দেশে ফিরে যান। অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা সাইফ হাসান আঙুলের চোটে টেস্ট শুরুর আগেই ছিটকে গেছেন। অন্যদিকে এই মুহূর্তে লিটন ও নাঈম ছিটকে যাওয়াতে দলের সদস্য সংখ্যা ১২ জন! একাদশের বাইরে মোস্তাফিজই আছেন সুস্থ। হুট করে কোনও সমস্যা হলে বড় সংকটে পড়তে হবে বাংলাদেশকে।

/এফআইআর/এমএমজে/

লাইভ

টপ