মঞ্চ প্রস্তুত, এখন কেবল অপেক্ষা

Send
রবিউল ইসলাম
প্রকাশিত : ১০:৩৭, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:০০, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯

মূল অনুষ্ঠানের আগে চলছে রিহার্সেল। ছবি-রবিউল ইসলাম।জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ক্রীড়াঙ্গনে থাকছে নানা আয়োজন। এ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর নামে বিপিএলের বিশেষ সংস্করণ আয়োজন করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বুধবার থেকে মাঠে গড়াবে চার-ছক্কার এই ধুম-ধারাক্কা ক্রিকেট। তবে এর আগে আজ রবিবার বিকালে উদ্বোধন হচ্ছে এই আসরের। আর তা করবেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই প্রস্তুত মঞ্চ, এখন কেবল অপেক্ষা। আর কয়েক ঘণ্টা পরই জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে পর্দা উঠছে বিপিএলের।

বিগত তিন আসরের শুরুটা ছিল সাদামাটা। ছিল না কোন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এবার ব্যতিক্রম। বিসিবির তত্ত্বাবধানে শুরুতেই বিশেষ আয়োজন। থাকছে বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। দেশি তারকাদের সঙ্গে বলিউড মহাতারকারাও মাতাবেন মঞ্চ। বলিউড তারকা সালমান খান, ক্যাটরিনা কাইফদের সঙ্গে দুই জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী সনু নিগাম ও কৈলাশ খের থাকছেন। বাংলাদেশিদের মধ্যে থাকবেন জেমস, মমতাজসহ স্থানীয় কিছু শিল্পী। 

অনুষ্ঠানের শুরুটা হবে দেশি শিল্পীদের দিয়েই। সবার আগে মঞ্চে উঠবেন জেমস। সব শেষে সালমান খান। তাদের স্বাগত জানাতে গত কয়েক দিন ধরে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। শনিবার তো কাজ চলেছে মধ্যরাত পর্যন্ত। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্যদের এই সময় ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছে। কোন রকমের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে লাইট, মাইকিং সবকিছুই পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। সামনে থেকে দেখভাল করেছেন খোদ বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান শেখ সোহেল ও সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক।

পুরো স্টেডিয়ামে পুরাতন দুটির সঙ্গে আর আটটি জায়ান্ট স্ক্রিন বসানো হয়েছে। স্টেজের দুই পাশে তিনটি করে মোট ছয়টি। স্টেজের দুই পাশে মাটি ছুঁয়ে দুই পাশেও রয়েছে আরও দুটি। আর পুরাতন দুটোতো আছেই। রাতে সবগুলোই পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। পারফর্মারদের গ্রিন রুমগুলোর দিকে তাকালে যে কারও চোখ আটকে যাবে। ঠিক যেমন হবিট হাউস!

সবমিলিয়ে উপস্থিত দর্শকদের প্রাণভরে অনুষ্ঠান উপভোগ করতে সকল চেষ্টাই করেছে বিসিবি। প্রধানমন্ত্রীর ছবি সম্মিলিত বড় একটি ফেস্টুন পূর্ব গ্যালারির দিকে শোভা পাচ্ছে। মধ্যরাতের মধ্যে সব কাজই গুছিয়ে এনেছেন আয়োজকরা। এ ব্যাপারে শেখ সোহেল বললেন, ‘প্রস্তুতি শেষ। এভরিথিং ইজ ডান। আশা করি রবিবার দারুণ একটি অনুষ্ঠান উপহার দিতে পারবো।’

মূল অনুষ্ঠানে নামার আগে হোম অব ক্রিকেটে ক্যাটরিনা-সালমানদের সহশিল্পীদের রিহার্সেল হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসতেই শেরে বাংলার ফ্লাড লাইটগুলো জ্বলে উঠে। মাঝে মধ্যে আতশবাজিও ফুটতে শুরু করে। ক্যাটরিনা ও সালমানের সঙ্গীরা রাত আটটার পর রিহার্সেল করেন প্রায় ঘণ্টা তিনেক। বিভিন্ন গানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলে তাদের অনুশীলন। মূল মঞ্চে পারফর্ম করার আগে ক্যাটরিনা ও সালমানদেরও রিহার্সেল করার কথা রয়েছে। আজ রাত দশটা বাজতেই ক্যাটরিনা-সালমান ভক্তদের অপেক্ষার প্রহর শেষ হবে!

এদিকে আজ প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে পুরো স্টেডিয়াম নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা। শনিবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত স্টেডিয়ামের নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখে গেছেন প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তারক্ষীরা। প্রধানমন্ত্রীর হাতেই যে উদ্বোধন হবে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের। আর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সম্প্রচার করবে ৩টি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল- গাজী টিভি, মাছরাঙা টিভি ও নিউজ-২৪। এছাড়া ঢাকা ও ঢাকার বাইরে জায়ান্ট স্ক্রিন বসিয়ে অনুষ্ঠান দেখার ব্যবস্থা রাখছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এই সংস্থা।

দর্শকদের জন্য গেট খুলে দেওয়া হবে দুপুর আড়াইটায়। তবে বিকাল ৫টার পর্যন্ত দর্শকরা মাঠে ঢোকার সুযোগ পাবেন। ক্লাব হাউজ, শহীদ জুয়েল স্ট্যান্ড, শহীদ মুশতাক স্ট্যান্ডসহ গ্র্যান্ড স্ট্যান্ডে বসে দেখা যাবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এছাড়া মাঠে কিছু চেয়ার বসিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপভোগের সুযোগ করে দিয়েছে বিসিবি।

/এফআইআর/

লাইভ

টপ