ম্যানসিটিতে পরের মৌসুমেও আছেন গার্দিওলা

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৩৮, জানুয়ারি ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৪৫, জানুয়ারি ১৮, ২০২০

পেপ গার্দিওলাপেপ গার্দিওলার ছোঁয়ায় ম্যানচেস্টার সিটির বদলে যাওয়া কারও নজর এড়ায়নি। ইতিহাদে স্প্যানিশ কোচের দ্বিতীয় মৌসুমেই অজস্র রেকর্ড গড়ে প্রিমিয়ার লিগ জিতেছে সিটিজেনরা। ক্লাব ইতিহাসে প্রথমবার টানা দুবার ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে গত মৌসুমে, ইংল্যান্ডের প্রথম ট্রেবলজয়ী দলও তারা। কিন্তু এবার প্রিমিয়ার লিগে দেখা যাচ্ছে ছন্দপতন। তাতে দমে যাচ্ছেন না গার্দিওলা, বরখাস্ত না হলে থাকবেন পরের মৌসুমেও।

২০১৬ সালের শুরুতে ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি করেন গার্দিওলা। স্পেন ও জার্মানিতে ক্লাব ফুটবলে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের পর ইংল্যান্ডে প্রথম মৌসুম কোনও ট্রফি জেতেননি। তবে নিজেকে চেনাতে সময় নেননি। ২০১৮ সালে পয়েন্ট (১০০), জয় (৩২), গোল (১০৬) ও টানা জয়ের (১৮) রেকর্ড গড়ে তৃতীয় প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জেতে ম্যানসিটি। এ ছাড়া লিগ কাপেও চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। এই সাফল্যের কারণেই তার সঙ্গে চুক্তিটা ২০২১ সাল পর্যন্ত বাড়িয়ে নেয় ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

নতুন চুক্তির প্রতিদান দিয়েছেন গার্দিওলা গত মৌসুমে। প্রিমিয়ার লিগ, এফএ কাপ ও লিগ কাপ-প্রথম ট্রেবলজয়ী দলের মর্যাদা পায় ম্যানসিটি । ইংলিশ চ্যাম্পিয়নরা টানা তৃতীয়বার লিগ ট্রফির দৌড়ে অনেক পিছিয়ে। এক ম্যাচ কম খেলে শীর্ষে থাকা লিভারপুলের (৬১) চেয়ে এখন ১৪ পয়েন্ট পেছনে  (৪৭)। তবে অন্য তিনটি প্রতিযোগিতায় আছে শিরোপা জয়ের আশা জাগিয়ে। এফএ কাপের চতুর্থ রাউন্ড, লিগ কাপের সেমিফাইনাল ও চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে উঠেছে গার্দিওলার দল।

শোনা যাচ্ছে, লিগের পাশাপাশি ইউরোপীয় মঞ্চে ব্যর্থ হলে চলে যাবেন সাবেক বার্সা কোচ। কিন্তু গুঞ্জন উড়িয়ে দিলেন গার্দিওলা । যা-ই ঘটুক না কেন, চুক্তি শেষ হলেই ক্লাব ছাড়বেন তিনি । ৪৮ বছর বয়সী কোচ বলেছেন, ‘আমি অনেকবার বলেছি, আমাকে যদি ক্লাব বরখাস্ত না করে, তাহলে আমি থাকার শতভাগ নিশ্চয়তা দিচ্ছি। পরের মৌসুম পর্যন্ত আমি অবশ্যই থাকছি। আগের দুটি ম্যাচ জিতেছি কিংবা গত কয়েক মাস ভালো খেলছি, সেজন্যে নয়। এই দলের সঙ্গে কাজ করাটাকে উপভোগ করছি আমি। চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে ছিটকে গেলেও আমি যাচ্ছি না কোথাও।’

উত্থান-পতনকে স্বাভাবিক হিসেবে মনে করছেন গার্দিওলা, ‘কোচ হিসেবে ভালো-খারাপ মুহূর্ত থাকবে। সব সময় আপনি সবকিছু জিতবেন না। আমরা পরে যেটা করতে পারি, সেটা হলো আমাদের উন্নতি।’

/এফএইচএম/পিকে/

লাইভ

টপ