পাকিস্তানে পৌঁছে গেছেন মাহমুদউল্লাহরা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২৩:৫২, জানুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:৩৪, জানুয়ারি ২৩, ২০২০

পাকিস্তানে পৌঁছে গেছেন মাহমুদউল্লাহরা

দীর্ঘ ভ্রমণ এড়াতে বিশেষ বিমানে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে পাঠানো হয়েছে পাকিস্তানে। তাতে অবশ্য বিসিবির খরচ হয়েছে ১ কোটি ২৭ লাখ টাকার মতো। আজ বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১১টার দিকে পাকিস্তানে পৌঁছেছে মাহমুদউল্লাহর দল। বাংলাদেশ দলের নিরাপদে পৌঁছানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বিসিবি সূত্র।

১৫ জন ক্রিকেটার বাদে কোচিং স্টাফ, সাপোর্ট স্টাফ মিলে ২৩ সদস্যের দল পাকিস্তানে গেছেন। সঙ্গে গেছেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা প্রধান আকরাম খান ও প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন। সঙ্গে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) দুই সদস্য ও একাধিক গণমাধ্যমকর্মী। বিমানে পাকিস্তান সফর সংশ্লিষ্টরা ছাড়া অন্য কোনও যাত্রী ছিলেন না।

শোনা যাচ্ছে, বাংলাদেশের ম্যাচকে ঘিরে নিরাপত্তাবলয় গড়ে তুলেছে পাকিস্তান সরকার। ১০ হাজারের বেশি পুলিশ সদস্যকে দায়িত্ব দিয়েছে পাঞ্জাবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এছাড়াও সিরিজ চলাকালীন দায়িত্বে থাকবেন ১৭ এসপি, ৪৮ ডিএসপি, ১৩৪ ইনসপেক্টর ও ৫৯২ জন আপার সাবঅর্ডিনেট।

লাহোরে আগামী ২৪, ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে পাকিস্তান ও বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে একবেলা অনুশীলন করে শুক্রবার প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলতে নামবে মাহমুদউল্লাহর দল।

পাকিস্তানে পৌঁছে গেছেন মাহমুদউল্লাহরা

বুধবার সন্ধ্যায় দেশ ছাড়ার আগে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। দলে সিনিয়র কম, তাই জুনিয়রদের দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে বলে মনে করেন সৌম্য সরকার, ‘অনেক সিনিয়রই নাই, থাকলে অবশ্যই ভালো হতো। অবশ্যই দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে। আমরা যারা জুনিয়র আছি, সেই চেষ্টাই করবো। চেষ্টা করবো ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই নিজের সেরাটা দেওয়ার।’

পাকিস্তানের মতো ঝুঁকিপূর্ণ একটি দেশে যেতে কতটা দুশ্চিন্তা কাজ করছে- এমন প্রশ্নে উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন বলেছেন, ‘না, এখন আর কোনও টেনশন নেই। মাথায় টেনশন রাখলে সেটা কেবল বাড়বেই। ফলে এই নিয়ে চিন্তা করে লাভ নেই। আমরা খেলতে যাচ্ছি, আমাদের পুরো ফোকাস খেলা নিয়েই হওয়া উচিত। আশা করি আমরা পাকিস্তানে গিয়ে ভালো কিছু করতে পারবো।’

অভিজ্ঞ পেসার শফিউল ইসলামও মনে করেন দুশ্চিন্তার কোনও কারণ নেই, ‘না, না, কোনও টেনশন নেই। যেহেতু বোর্ড সবকিছু চেক করেই পাঠাচ্ছে, তাই কোনও টেনশন নেই। ভালো করে দেশে যাতে ফিরতে পারি, ভালো কিছু নিয়ে আসতে পারি এটাই প্রত্যাশা।'

 

/আরআই/পিকে/

লাইভ

টপ