ব্যাটিং দুর্দশায় মাহমুদউল্লাহর হতাশা

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:৫০, জানুয়ারি ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৫৯, জানুয়ারি ২৫, ২০২০

টপ অর্ডারের ব্যর্থতার মাশুল দিয়েছে বাংলাদেশপ্রথম ম্যাচে উদ্বোধনী জুটিটা দারুণ ছিল। তবে ব্যাটিংয়ে শেষটা ভালো হয়নি। আজ শনিবার দ্বিতীয় ম্যাচেও বিবর্ণ ব্যাটসম্যানরা। স্কোরবোর্ড সমৃদ্ধ হয়নি, তাতে পাকিস্তানকে কঠিন পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি বাংলাদেশ। এক ম্যাচ আগেই টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারের পর ব্যাটিং ব্যর্থতাকে দুষলেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

টি-টোয়েন্টিতে চ্যালেঞ্জিং স্কোর করতে টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হয়। সেই জায়গায় বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচে দাঁড়াতেই পারেনি তামিম ইকবাল ছাড়া। একে একে উইকেট হারিয়েছেন মোহাম্মদ নাঈম (০), মেহেদী হাসান (৯) ও লিটন দাস (৮)।

তামিমের ইনিংস সেরা ৬৫ রানের পর দুই অঙ্কের ঘরে রান করেন শুধু আফিফ হোসেন ও মাহমুদউল্লাহ। আফিফের ২০ বলে ২১ ও মাহমুদউল্লাহর ১২ বলে ১২ রান ছিল না যথেষ্ট। তাতে ৬ উইকেটে ১৩৬ রান করে বাংলাদেশ, ম্যাচটি নির্বিঘ্নে জিতে গেছে পাকিস্তান।

হারের পর স্বাভাবিকভাবে ব্যাটিং ব্যর্থতাকে দায়ী করলেন মাহমুদউল্লাহ, ‘ব্যাট হাতে আমরা নিজেদের মেলে ধরতে পারিনি, শুধু তামিম ছাড়া। হেরে আমরা হতাশ।’

প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ করেছিল ১৪১ রান। পরের খেলায় এলো তার চেয়েও ৫ রান কম। স্কোরবোর্ডে পর্যাপ্ত রান না তোলার আক্ষেপ বাংলাদেশ অধিনায়কের কণ্ঠে, ‘স্কোরটা ১৫০ থেকে ১৬০ রানের মধ্যে হওয়া উচিত ছিল।’

প্রতিপক্ষকেও কৃতিত্ব দিলেন মাহমুদউল্লাহ, ‘আমাদের মধ্যে একাগ্রতা ছিল। কৃতিত্ব পাকিস্তানের বোলারদের। আমরা ভালোভাবে শেষ করতে পারিনি।’ আগামী সোমবার লাহোরেই হবে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ। হোয়াইটওয়াশ এড়াতে পরের ম্যাচের পরিকল্পনা কী, এখনও ঠিক করেননি তিনি, ‘শেষ ম্যাচের জন্য আমাদের পরিকল্পনা কী হবে, এখনও নিশ্চিত নই। তবে আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে, জেতার জন্য।’

/এফএইচএম/

লাইভ

টপ