শুধু আবর্জনা ফেলতে বাইরে যান রাকিতিচ

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:৫০, মার্চ ২৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৫০, মার্চ ২৩, ২০২০

বার্সেলোনা মিডফিল্ডার ইভান রাকিতিচখুব জরুরি কাজ ছাড়া বাইরে যাওয়া নিষেধ- স্পেন সরকারের নির্দেশে ‘ঘরবন্দি’ ইভান রাকিতিচ। বছরের প্রায় প্রতিদিনই ফুটবল মাঠে পড়ে থাকা মানুষটি কিনা দিনের ২৪ ঘণ্টাই থাকছেন ঘরের মধ্যে! বার্সেলোনা মিডফিল্ডার বাইরে যদিওবা যান, সেটি শুধুমাত্র আবর্জনা ফেলার জন্য।

করোনাভাইরাসের কারণে জীবন পুরোপুরি বদলে গেছে রাকিতিচের। দৈনন্দিন জীবনের রুটিনই পাল্টে ফেলতে হয়েছে তাকে। তাই বলে অলস বসে থাকার সুযোগ নেই। পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড় হিসেবে ফিটনেস তো ধরে রাখা চাই। তাই নিয়ম করে জিম করছেন তিনি। ‘ঘরের জিমে’ সঙ্গী হিসেবে পাচ্ছেন স্ত্রীকে।

করোনা মারাত্মক আকার ধারণ করেছে স্পেন। জরুরি পণ্য সরবরাহ, ওষুধ কিংবা কাজ ব্যতীত দেশটির সরকার সাধারণ মানুষের বাইরে বেরোনো নিষিদ্ধ করেছে। লা লিগাও বন্ধ ঘোষণা করেছে অনির্দিষ্টকালের জন্য। এই অবস্থায় ‘ঘরবন্দি’ জীবন পার করেছেন রাকিতিচ। বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বার্সেলোনার অফিশিয়াল চ্যানেলে তিনি বলেছেন, ‘শুধুমাত্র আমি বাইরে যাচ্ছি আবর্জনা ফেলার জন্য, যেটা আমার বাসা থেকে মাত্র ৫০ মিটার দূরে। এই কাজটি করার জন্য কেবল আমি রাস্তায় যাচ্ছি।’

চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগ খেলতে বার্সেলোনা গিয়েছিল নেপলসের মাঠে। ইতালিতে তখন করোনা ছড়িয়ে পড়েছে ব্যাপক হারে। ভাইরাসটি যে স্পেনেও বড় আকার ধারণ করবে, রাকিতিচ সেটা টের পেয়েছিলেন নাপোলি ম্যাচেই, ‘এটা আমাকে মোটেও অবাক করেনি। আমরা যখন নেপলসে গিয়েছিলাম, তখনই বুঝতে পেরেছিলাম। আমি জাভিকে (দলের চিকিৎসক) বলেছিলাম, এটা খুব খারাপ হবে।’

স্পেনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩ হাজারের ওপরে, আর মারা গেছে ২ হাজারের বেশি মানুষ। গোটা বিশ্বে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছে ১৫ হাজারেরও বেশি মানুষ, সংক্রমণের সংখ্যা সাড়ে ৩ লাখ।

/কেআর/

লাইভ

টপ