করোনা প্রতিরোধ চীন থেকে শিখতে বললেন বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮:১৭, মার্চ ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২৯, মার্চ ২৫, ২০২০

ইতালির বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ফাবিও ক্যানাভারোচীনের উহান থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের প্রায় সব দেশে। মহামারি আকার ধারণ করা ভাইরাসটি চীনে উৎপত্তি হলেও দেশটি ঘুরে দাঁড়িয়েছে। স্বাভাবিক জীবনযাপন শুরু হয়েছে সেখানে। কিন্তু বিশ্বের অন্যান্য দেশে এখন মারাত্মক হয়ে উঠেছে করোনা। মহামারি ঠেকাতে চীনের কাছ থেকেই শিক্ষা নিতে বলছেন ইতালির বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ফাবিও ক্যানাভারো।

চীনের ক্লাব গুয়াংজু এভারগ্রান্ডের কোচের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন ইতালির সাবেক ডিফেন্ডার। তার কর্মস্থল ও দেশ করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সবচেয়ে বেশি। প্রাণঘাতী এই ভাইরাস সম্পর্কে তার জানাশোনাও অনেক। সেই অভিজ্ঞতা থেকেই করোনা প্রতিরোধে চীনকে আদর্শ মানার পরামর্শ ২০০৬ সালের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়কের, ‘গুয়ানজুতে ভাইরাস এখন নিয়ন্ত্রণে, এখন জীবনযাপন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে। কোনও বিধিনিষেধ নেই, শুধু ১৪ দিন বাড়িতে থাকতে হয়েছে।’

সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘আমি কিন্তু দুই দিনে আমার কোয়ারেন্টিন শেষ করেছি। বাড়িতে থাকাটা সবচেয়ে জরুরি, কেননা আমরা অন্য মানুষের শরীরে ভাইরাস দিতে পারি না। আমাদের চীনের কাছ থেকে শেখা উচিত। তারা এই পরিস্থিতিতে সবচেয়ে অভিজ্ঞ।’

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ মে মাসের আগে শুরু হচ্ছে না। লা লিগা তো অনির্দিষ্টকালের জন্যই বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে! করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ইতালিতে সিরি ‘আ’ কবে শুরু হবে, নিশ্চিত করে বলার সুযোগ নেই। এই অবস্থায় মৌসুমের শেষের নির্ধারিত সময়ের আগে ইউরোপিয়ান ফুটবল মাঠে গড়ানো নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ক্যানাভারো।

সাধারণত মে পর্যন্ত থাকে মৌসুম শেষের সময়। তবে করোনার কারণে নির্ধারিত সময়ে যে এবারের মৌসুম শেষ করা যাচ্ছে না, সেটা নিশ্চিত হয়ে গেছে আগেই। ইউরোপিয়ান ঘরোয়া লিগ শেষ করতে এ বছরের ইউরো নিয়ে যাওয়া হয়েছে সামনের বছর। আর ২০১৯-২০ মৌসুম শেষ করার সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে জুনের শেষ পর্যন্ত।

কিন্তু কবে নাগাদ ইউরোপিয়ান ফুুটবল শুরু করা যাবে, এই প্রশ্নের কোনও উত্তর নেই। করোনার প্রভাব আরও ব্যাপক আকার ধারণ করায় লিগ আর হয় কিনা, সেই শঙ্কাও অনেকের মনে। ক্যানাভারোর মনে এই সংশয় না থাকলেও মে মাসে ইউরোপিয়ান ফুটবল শুরু করা নিয়ে শঙ্কা ঠিকই আছে, ‘এক মাসের কম সময়ের মধ্যে পৃথিবীতে কী ঘটবে, কারও জানা নেই। আমার মনে হয় এটি (করোনাভাইরাস) ইতালি ও স্পেনে শেষ হতে লম্বা সময় লাগবে। তাই মৌসুম শেষ হওয়ার আগে ইউরোপিয়ান ফুটবল শুরু করাটা কঠিন।’

/কেআর/

লাইভ

টপ