দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হলেও এখনই ক্রিকেট নয়: ওয়াকার

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:০৬, এপ্রিল ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:১৩, এপ্রিল ০৬, ২০২০

সারা বিশ্বজুড়েই কিছু ক্রিকেট তারকা এবং কর্মকর্তা বলছেন ধীরে ধীরে ক্রিকেট খেলাটা আবার শুরু করে দেওয়া উচিত। খেলোয়াড়, ম্যাচ অফিশিয়াল ও মাঠের অন্য কর্মীদের জন্য যথাযোগ্য সতর্কতা অবলম্বন করে ম্যাচ খেলা হোক দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে। তবে ওয়াকার ইউনিস এমন প্রস্তাব মোটেও সমর্থন করেন না।

পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেট অধিনায়ক ও কোচ মনে করেন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণের এই সময়ে তড়িঘড়ি করে ক্রিকেট মাঠে নামিয়ে মানুষের জীবনকেই আরও বিপদের মুখে ঠেলে দেওয়া হবে। সোমবার সাংবাদিকদের সঙ্গে এক ভিডিও কনফারেন্সে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের বর্তমান পেস বোলিং কোচ বলেছেন, এই মুহূর্তে কোনও ক্রিকেট কার্যক্রমই চলা উচিত নয়, ‘ আমি একেবারেই একমত নই যে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হলেও ক্রিকেট আবার শুরু করা উচিত।’

ইতালি ও স্পেনে করোনা সংক্রমণের হার একটু কম মনে হলেও বিশ্বের অন্যান্য জায়গায় তা বেড়েই চলেছে। উপমহাদেশে তো সংক্রমণ বাড়ছে উদ্বেগজনকভাবে। সারা বিশ্বে এ পর্যন্ত করোনার বলি ৭০ হাজার মানুষ।

ওয়াকার ইউনিস মনে করেন, সামনে পরিস্থিতি যখন স্বাভাবিক হয়ে আসবে তখন ক্রিকেট শুরুর কথা ভাবাই ঠিক হবে। তবে সেটাও হয়তো তার দৃষ্টিতে পাঁচ-ছয় মাসের আগে সম্ভব হবে না, ‘আমার মনে হয় ৫-৬ মাস পর যখন পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আসবে, পৃথিবী আবার স্বাভাবিক হয়ে আসবে অনেকটাই, তখন আমরা দরজা বন্ধ রেখে ম্যাচ খেলার কথা ভাবতে পারবো। একটা অবস্থায় গিয়ে আমাদের সেসব কথা ভাবতেই হবে। তবে এ মাসে বা আগামী মাসেও নয়… পরিস্থিতি এখন কোনওভাবেই ক্রিকেট চালানোর উপযোগী নয়।’

আবারও দ্রুতই ক্রিকেট শুরুর প্রসঙ্গে এসেছে অস্ট্রেলিয়ায় অক্টোবরে নির্ধারিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কথা। পাকিস্তানের কিংবদন্তিতুল্য সাবেক ফাস্ট বোলার এ বছরই ২০ ওভারের ক্রিকেটের বিশ্বকাপটা দেখতে চান, সেটি সামান্য পিছিয়ে হলেও। আর এই অবসরে ওয়ানডেতে সবচেয়ে কম বয়সে ৪০০ উইকেট শিকারী বোলার জানিয়ে দিয়েছেন এক স্বপ্নের কথা। সেটি হলো, কোচিং স্টাফের অংশ হিসেবে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়। ‘আমি যখন পাকিস্তান দলে খেলেছি বা কোচ হিসেবে কাজ করেছি, আমি সবসময়ই চেয়েছি দল বড় কোনও ট্রফি জিতুক। এ জন্যই এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আমার এবং দলের জন্য এত গুরুত্বপূর্ণ’- বলেছেন ওয়াকার ইউনিস।

 

/পিকে/

লাইভ

টপ