নেইমারকে বার্সায় ফিরতে দিচ্ছে না করোনা!

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:৫৮, মে ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১৬, মে ২০, ২০২০

নেইমারন্যু ক্যাম্প আবার নেইমারকে বরণ করে নিতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। নিরুচ্চারে কিংবা সশব্দে  কাতালানের আকাশে-বাতাসে ঘোষিত হয়ে গেছে মেসি-সুয়ারেজের সঙ্গে আবারও বার্সায় ফিরে ‘ত্রিভুজ’ গড়ে তুলতে চলেছেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবল তারকা। কিন্তু নেইমারের এজেন্ট ওয়াগনার রিবেইরো দাবি করে বসলেন, ‘করোনাভাইরাসের প্রভাবে নেইমারকেই পিএসজিতে থেকে যেতে হচ্ছে, অন্তত এবারও তার ফেরা হচ্ছে না বার্সেলোনায়।’

চার বছরের স্মৃতি মুছে, মেসি-সুয়ারেজের সঙ্গে বন্ধুত্বের বাঁধন ছিঁড়ে নেইমার ২০১৭ সালে আকস্মিকভাবে যোগ দেন প্যারিসের ক্লাব প্যারিস সেন্ত জার্মেইতে। ট্রান্সফার ফি-টা চোখ কপালে তুলে দেওয়ার মতো, এখনও পর্যন্ত দলবদলের বিশ্বরেকর্ড, ১৯৮ মিলিয়ন পাউন্ড বা ২২২ মিলিয়ন ইউরো। যে কারণ দেখিয়ে নেইমার চলে গিয়েছিলেন, সে হলো, মেসির ছায়া থেকে সরে নিজের আলাদা পরিচয় তুলে ধরা!

নেইমার চলে যাওয়ার পর প্রতিপক্ষের জন্য ভীতি জাগানিয়া আক্রমণত্রয়ী ‘এমএসএন’ ভেঙে গেছে। বার্সেলোনা এখন অনেকটাই বিবর্ণ। নেইমারকে ফিরিয়ে এনে এমএসএন-কে পুনরুজ্জীবিত করতে চাইছে বার্সেলোনা গত মৌসুম থেকেই। গতবার সেটি হতে পারেনি পিএসজির অনঢ় অবস্থানের কারণে। এবার তারা একটু নমনীয় হওয়াতেই নেইমারের ফিরে আসার সম্ভাবনা জেগেছিল। আবার ফ্রান্সের জীবনে খাপ খাওয়াতে না পেরে নেইমার নিজেও এবার বার্সায় ফিরতে উদগ্রীব বলে জানা যাচ্ছিল।

কিন্তু নেইমারের প্রতিনিধি ওয়াগনার রিবেইরো বলেছেন, করোনাভাইরাস মহামারি ফুটবলের আর্থিক ভারসাম্যটা নষ্ট করে দিয়েছে। এজন্যেই তার বিশ্বাস নেইমার শেষ পর্যন্ত পার্ক দু প্রিন্সেসেই থেকে যাচ্ছেন। ‘আমার মনে হয় নেইমার পিএসজিতেই থেকে যাচ্ছেন, কারণ বাজারটা বড় কঠিন। ফুটবলের অর্থনৈতিক দিগন্ত বদলে যাবে’- ব্রিটিশ দৈনিক দ্য সানকে বলেছেন রিবেইরো।

বার্সেলোনা নতুন একজন ফরোয়ার্ডকে দলভুক্ত করতে মরিয়া। ইন্টার মিলানের লাওতারো মার্তিনেজ এবং আর্সেনালের পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াংয়ের নাম খুব ভালোভাবেই জড়িয়েছে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের নামের সঙ্গে। কিন্তু নেইমার যেহেতু ক্লাবটির আদ্যন্ত জানেন, সেজন্য সবার ধারণা নেইমারকে ফেরানোটাই ভালো। তাছাড়া মেসি-সুয়ারেজও তাদের বন্ধুকে ফিরে পেতে চান। সফল বার্সেলোনা-অধ্যায়ে নেইমার করেছিলেন ১০৫ গোল, দলের হয়ে ট্রফি জিতেছিলেন ৮টি।

/পিকে/

লাইভ

টপ