‘ট্রাম্পের শরীরে নীতির কোনও হাড়ই নেই’

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৩:২১, জুন ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:৩৮, জুন ০৫, ২০২০

মাইকেল ব্র্যাডলি ধুয়ে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকেজর্জ ফ্লয়েডের হত্যায় উত্তপ্ত যুক্তরাষ্ট্র। শ্বেতাঙ্গ পুলিশের হাতে ৪৬ বছর বয়সী কৃষ্ণাঙ্গের নির্মম মৃত্যুতে আরেকবার বর্ণবৈষম্যের বিষয়টি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে বিশ্বে। গণআন্দোলনে রূপ নেওয়া এই ইস্যুর আগে করোনাভাইরাস গ্রাস করে রেখেছিল যুক্তরাষ্ট্রকে। দুটো মিলিয়ে তৈরি হওয়া কঠিন পরিস্থিতি সামাল দেওয়া তো দূরে থাক, উল্টো বিভিন্ন পদক্ষেপে আগুনে আরও ঘি ঢেলে দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প! এ নিয়ে তার ওপর বেজায় চটেছেন যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ। তাদেরই একজন মাইকেল ব্র্যাডলি। যুক্তরাষ্ট্রের মিডফিল্ডার রীতিমত ধুয়ে দিয়েছেন ট্রাম্পকে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টকে ‘পুরোপুরি ফাঁকা’ উল্লেখ করে ব্যাডলি জানিয়েছেন ‘ট্রাম্পের শরীরে নীতির কোনও হাড়ই নেই’। গত সাড়ে তিন বছরে ট্রাম্পের প্রতিটি সিদ্ধান্ত ‘সাংঘর্ষিক’ ও ‘বাজে’ বলে মনে করেন ৩২ বছর বয়সী মিডফিল্ডার। ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর যুক্তরাষ্ট্রকে সঠিক পথে ফেরানোর এটাকেই সঠিক সময় মনে করছেন জাতীয় দলের জার্সিতে ১৫১ ম্যাচ খেলা এই তারকা।

করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রের মৃতের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়েছে। প্রাণঘাতী ভাইরাস নিয়েও ট্রাম্পে সমালোচনা চলছে দেশটিতে। এর মধ্যেই ফ্লয়েড হত্যায় উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি। নিজ দেশে এমন অবস্থা কিছুতেই মানতে পারছেন না ব্র্যাডলি। রাগ-ক্ষোভ সব উগড়ে দিয়েছেন তিনি ট্রাম্পের ওপর। মিডিয়া কনফারেন্স কলে টরেন্টো এফসি মিডফিল্ডার বলেছেন, ‘আমাদের এমন একজন প্রেসিডেন্ট, যিনি পুরোটাই ফাঁকা। তার শরীরে নীতির কোনও হাড়ই নেই।’

ট্রাম্পের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসনের কঠোর সমালোচনা করেছেন ব্যাডলি, ‘কোনও নেতৃত্ব নেই। প্রেসিডেন্টের মধ্যে নেতৃত্ব নেই, রিপাবলিক সিনেটরদের কারও মধ্যে নেতৃত্ব নেই। তারা গত সাড়ে তিন বছর ধরে প্রেসিডেন্টের অবৈধ কাজ বসে বসে দেখছেন এবং তাকে সাহয্য করছেন।’

তবে এই অবস্থা আর চলতে দিতে চান না বরুসিয়া মনশেনগ্ল্যাডবাখ ও রোমার হয়ে খেলা মিডফিল্ডার। এজন্য প্রয়োজনীয় সবকিছু করতে প্রস্তুত তিনি, ‘আমি ক্ষুব্ধ, আমি ভীত, দুঃখিত এবং এই অবস্থার সমাধান করতে আমি যেকোনও কিছু করতে প্রস্তুত। কারণ এটার ইতি টানা দরকার। আমাদের সবাইকে একসঙ্গে সমাধান করতে হবে। যদি আমরা এটার সমাধান চাই, তাহলে ট্রাম্পের আর প্রেসিডেন্ট থাকা চলবে না, এটা একেবারে পরিষ্কার।’

/কেআর/

লাইভ

টপ